• বুধবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২১
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:৩৭ রাত

মার্কিন নির্বাচন: মিশিগানে ভোটগণনা তদন্তের ঘোষণা

  • প্রকাশিত ০৯:০৯ সকাল নভেম্বর ৭, ২০২০
মার্কিন-প্রেসিডেন্ট-নির্বাচন
ভোটকেন্দ্র ঘিরে ট্রাম্প সমর্থকদের বিক্ষোভ। রয়টার্স

জটিলতা তৈরি হয়েছে জর্জিয়ার ভোটগণনা নিয়েও। এই অঙ্গরাজ্যে দুই প্রার্থীর মধ্যে ভোটের ব্যবধান কম হওয়ায়, ভোট পুনর্গণনা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন অঙ্গরাজ্যটির সেক্রেটারি অব স্টেট

মিশিগান অঙ্গরাজ্যের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার অঙ্গরাজ্যটির নির্বাচন ও এর ভোট গণনা পদ্ধতি নিয়ে তদন্তের ঘোষণা দিয়েছেন। অঙ্গরাজ্যটির রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার লি চ্যাটফিল্ড বলেছেন, আইনসভার পর্যবেক্ষক কমিটি যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শনিবার (৭ নভেম্বর) এই তদন্ত শুরুর বিষয়ে বৈঠক করবে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, লি চ্যাটফিল্ড শনিবার মিশিগান অঙ্গরাজ্যের প্রতিনিধি পরিষদের পর্যবেক্ষক কমিটি নির্বাচন ও এর ভোট গণনা পদ্ধতি নিয়ে বৈঠকে বসবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

এক টুইটে লি চ্যাটফিল্ড লেখেন, “ফল পরিবর্তন লক্ষ্য নয়। যুক্তরাষ্ট্রের ঐক্য ও নিশ্চয়তা দরকার। এটা প্রয়োজন।”

পাশাপাশি চ্যাটফিল্ড এই বলে নিশ্চয়তা দিয়েছেন যে, “নির্বাচনে যিনিই বেশি ভোট পাবেন, তিনিই মিশিগান জয় করবেন। এখানেই গল্প শেষ। আমরা এগিয়ে যাব।”

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও মিশিগান রিপাবলিকান দল ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছিল আগেই। কিন্তু এসম্পর্কে কোনো প্রমাণ তারা হাজির করেনি। অঙ্গরাজ্যটিতে বাইডেন থেকে ভোটে ক্রমে পিছিয়ে পড়ার সময় থেকেই এই অভিযোগ তোলা হয়। গত ৬ নভেম্বর ভোট গণনা বন্ধে মামলাও করা হয়।

অভিযোগ ছিল, ভোট গণনার নির্ধারিত স্থানে ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচার শিবিরের কাউকে সেভাবে উপস্থিত থাকার সুযোগ দেওয়া হয়নি। সে কারণে তাদের পক্ষে ব্যালট পেপার খোলা ও ভোট গণনার প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ সম্ভব হয়নি। একইসঙ্গে এই অনুপস্থিতির সময় যেসব ভোট গণনা ও ব্যালট পেপার খোলা হয়েছে, সেগুলো পুনর্মূল্যায়নেরও দাবি জানায় তারা। তবে, মিশিগানের আদালতের বিচারক সিনথিয়া স্টিফেনস ওই দিনই মামলাটি খারিজের আদেশ দেন।

ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্সের তথ্যমতে, মিশিগানে এখন পর্যন্ত মোট সম্ভাব্য ভোটের ৯৯% গণনা হয়েছে। এরমধ্যে বাইডেন পেয়েছেন ৫০.৫% ভোট। ট্রাম্প পেয়েছেন ৪৭.৯% ভোট। অঙ্গরাজ্যটিতে বাইডেন ট্রাম্প থেকে ১ লাখ ৪৭ হাজার ৮৯৮ ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন।

জর্জিয়া

এদিকে জটিলতা তৈরি হয়েছে জর্জিয়ার ভোট গণনা নিয়েও। এই অঙ্গরাজ্যে দুই প্রার্থীর মধ্যে ভোটের ব্যবধান কম হওয়ায় এই ভোট পুনর্গণনা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন অঙ্গরাজ্যটির সেক্রেটারি অব স্টেট। তবে সাধারণত, এধরনের ভোট গণনায় ফল পরিবর্তন হওয়ার ইতিহাস যুক্তরাষ্ট্রে নেই।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জর্জিয়ায় জো বাইডেন ডোনাল্ড ট্রাম্প থেকে ৪ হাজারের কিছু বেশি ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। অঙ্গরাজ্যটিতে মোট সম্ভাব্য ভোটের ৯৯% এরইমধ্যে গণনা হয়ে গিয়েছে। ফলে সব ভোট গণনার পরও এই ব্যবধান খুব বেশি হবে না। এই অবস্থায় যেকোনো ধরনের ত্রুটি এড়াতে ভোট পুনর্গণনার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে জর্জিয়ার নির্বাচন কর্তৃপক্ষ।

পেনসিলভানিয়া

আরেক অঙ্গরাজ্য পেনসিলভানিয়া নিয়েও প্রবল উত্তেজনা কাজ করছে। এই অঙ্গরাজ্যেও ভোট জালিয়াতি হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন ট্রাম্প ও তার নির্বাচনী প্রচার শিবির। অঙ্গরাজ্যটিতে এই মুহূর্তে সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাইডেন ট্রাম্প থেকে ১৪ হাজারের বেশি ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। অঙ্গরাজ্যটির মোট সম্ভাব্য ভোটের ৯৬% এরইমধ্যে গণনা হয়ে গেছে।

অঙ্গরাজ্যটির আলেগেনি কাউন্টিতেই এখনো প্রায় ৩৫ হাজার ভোট গণনা বাকি রয়েছে বলে জানিয়েছে সিএনএন। এই ভোটগুলোর সবই ডাকযোগে আসা। এরমধ্যে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার ভোট বিদেশে থাকা মার্কিন নাগরিক ও সামরিক বাহিনীর সদস্যদের। এসব ব্যালট সবার উপস্থিতিতে গণনা করা হচ্ছে। এর বাইরে রয়েছে আরও ২৯ হাজারের মতো ব্যালট, যেগুলো ডাকযোগে পাঠানোর সময় ভোটারেরা ছোটখাটো ভুল করেছিলেন। সংশ্লিষ্ট ভোটারদের সঙ্গে যোগাযোগ করে সেসব ভুল শুধরে এসব ব্যালট গণনা করা হবে। তবে আদালতের আদেশের কারণে এই ব্যালটগুলো গণনায় একটু দেরি হবে।

পেনসিলভানিয়ার প্রতিনিধি পরিষদের রিপাবলিকান স্পিকার ব্রায়ান কাটলারের দেওয়া তথ্যমতে, গণনা বাকি থাকা ভোটের সংখ্যা ১ লাখের মতো হবে। আর সিএনএন এর নিজস্ব হিসাব বলছে, অন্তত ৬৯ হাজার ভোট এখনো গণনা বাকি রয়েছে।

অ্যারিজোনা

অ্যারিজোনার সেক্রেটারি অব স্টেট কেটি হবস জানিয়েছেন, অঙ্গরাজ্যটিতে এখনো ২ লাখ ৫০ থেকে ২ লাখ ৭০ হাজারের মতো ভোট গণনা বাকি রয়েছে। রয়টার্সের তথ্যমতে, অঙ্গরাজ্যটিতে এখন পর্যন্ত মোট সম্ভাব্য ভোটের ৯৪% গণনা হয়েছে। এর মধ্যে বাইডেন ৪৯.৯ ও ট্রাম্প ৪৯.৬% ভোট পেয়েছেন। বাইডেন এই অঙ্গরাজ্যে এখন পর্যন্ত ট্রাম্প থেকে ৩৯ হাজারের বেশি ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন।

অ্যারিজোনায় গণনা বাকি থাকা ভোটের একটি বড় অংশই ম্যারিকোপা কাউন্টির। সেখানকার ১ লাখ ৩৭ হাজার ব্যালট এখনো গণনা হয়নি বলে জানিয়েছে কেটি হবস। তিনি বলেন, ম্যারিকোপা কাউন্টির নির্বাচন কর্তৃপক্ষ এই ভোট আগামী সপ্তাহান্ত (রবিবার) পর্যন্ত চলতে পারে বলে জানিয়েছে।

নেভাদা

নেভাদা নিয়ে এখনো তেমন জটিলতা তৈরি না হলেও সেখানে জোর লড়াই চলছে। অঙ্গরাজ্যটির ৬টি ইলেকটোরাল ভোট কার দিকে যাবে, এখনো তা নিশ্চিত নয়।

রয়টার্সের তথ্যমতে, অঙ্গরাজ্যটির মোট সম্ভাব্য ভোটের ৯৩% এখন পর্যন্ত গণনা হয়েছে। এরমধ্যে বাইডেন ৪৯.৮ ও ট্রাম্প ৪৮% ভোট পেয়েছেন। বাইডেন ট্রাম্প থেকে ২২ হাজার ৬৫৪ ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। এখনো নির্বাচনের ফল ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো যথেষ্টসংখ্যক ভোট সেখানে গণনার বাকি রয়েছে।

51
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail