• শনিবার, জুলাই ৩১, ২০২১
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৩:০৮ বিকেল

ফেসবুক, ইন্সটাগ্রামে ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ ট্রাম্প

  • প্রকাশিত ১২:১৪ দুপুর জুন ৫, ২০২১
ডোনাল্ড ট্রাম্প
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সংগৃহীত

যদি তার কারণে জনগণের নিরাপত্তা সংক্রান্ত ঝুঁকি কমে তবে তাকে আবারও এই প্লাটফর্মে ফিরিয়ে আনা হতে পারে

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দুই বছরের জন্য ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রামে নিষিদ্ধ করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ২০২৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত এ দুইটি অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন না তিনি। শুক্রবার (৪ জুন) ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এই ঘোষণা দেয়। শনিবার (৫ জুন ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম (বিবিসি) এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে।

ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল ভবনে হামলা ও সহিংসতা চালাতে সমর্থকদের উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে গত জানুয়ারি মাসে তাকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল ফেসবুক। ট্রাম্প সমর্থকদের সেদিনের সেই ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তাসহ পাঁচজন নিহত হয়েছিলেন। যৌক্তিক শাস্তি নির্ধারণ করতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ছয় মাস সময় দিয়েছিল ওভারসাইট বোর্ড, কিন্তু একমাসের মধ্যেই ফেসবুক তাদের সিদ্ধান্ত জানাল।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানায়, আগামী দুই বছরের জন্য ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিষিদ্ধের পরিকল্পনা করা হয়েছে। তবে যদি জনগণের নিরাপত্তা সংক্রান্ত ঝুঁকি কমে তাহলে তাকে ফের এই প্লাটফর্মে ফিরিয়ে আনা হতে পারে।

ফেসবুকের ওয়েবসাইটে ব্লগ পোস্ট করে জানানো হয়েছে, বড় ধরনের সহিংসতা বা সংকটকালীন সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় ব্যক্তিদের (পাবলিক ফিগার) আচরণের বিষয়টি ফেসবুকের নতুন নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। নীতিমালার নিয়ম লঙ্ঘনকারীদের বিভিন্ন মেয়াদে ফেসবুকে নিষিদ্ধ করা হবে। প্রথমে এক মাসের জন্য সাসপেন্ড করা হবে। প্রতিটি সময়কালের শেষে বিশেষজ্ঞদের সাহায্য নিয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হবে। ট্রাম্পকে নিষিদ্ধের এই বিষয়টিও সদ্য সমাপ্ত মে মাসে ফেসবুক ওভারসাইট বোর্ডের সুপারিশ অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ফেসবুক ব্যবহার করে যেসব বিতর্কিত ব্যক্তিত্ব ভবিষ্যতে সহিংসতায় উস্কানি দেওয়াসহ বিভিন্ন ধরনের সংকটের সৃষ্টি করলে কীভাবে সেগুলো নিয়ন্ত্রণ করা হবে, এই ঘোষণায় তার ইঙ্গিত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

ফেসবুকের গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট নিক ক্লেগ বলেন, “যে কোনো শাস্তি আমরা দিই বা না দিই-সেটাই বিতর্কিত হয়ে উঠবে। অনেকে বিশ্বাস করেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো একজন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টকে এভাবে ফেসবুকে নিষিদ্ধ করা ঠিক হয়নি। আবার অনেকে বিশ্বাস করেন, ট্রাম্পকে এখনই সারা জীবনের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করা উচিত।”

তিনি আরও বলেন, “রাজনৈতিক ক্ষেত্রে বিরোধীদের থেকে আজকের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করা হবে, সেটও আমরা জানি। কিন্তু আমাদের কাজ, যতটা সম্ভব স্বচ্ছ ও সুন্দরভাবে কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছানো।”

প্রতিক্রিয়ায় যা বললেন ডোনাল্ড ট্রাম্প:

ফেসবুকের এই আদেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাড়ে সাতকোটি মানুষ, অন্য আরও যারা ভোটার আছেন তাদের সবার জন্য অপমান বলে দাবি করেছেন ট্রাম্প। নিষেধাজ্ঞার পর “সেভ আমেরিকা পলিটিকাল অ্যাকশন কমিটি”র পক্ষ থেকে পাঠানো একটি বিবৃতিতে এ কথা জানান তিনি।

তিনি বলেন, “এভাবে সেন্সর করে আর চুপ করিয়ে দেয়ার কর্মকাণ্ড করে তাদের পার পেতে দেয়া ঠিক হবে না। শেষ পর্যন্ত আমরাই জিতবো। আমাদের দেশ আর কোন নিপীড়ন সহ্য করবে না।” 

দ্বিতীয় আরেকটি বিবৃতিতে ডোনাল্ড ট্রাম্প ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতাকে আক্রমণ করে বলেন, “এরপর আবার যখন আমি হোয়াইট হাউজে থাকবো, মার্ক জুকারবার্গ এবং তার স্ত্রীর অনুরোধে আর কোন ডিনার হবে না।”

ফেসবুকের এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে আবার ফেসবুকে ফিরে আসার সুযোগ পাবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

প্রসঙ্গত, জানুয়ারি মাসের দাঙ্গায় উস্কানি দেয়ার অভিযোগে ফেসবুকের বাইরে ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটার, ইউটিউব, স্ন্যাপচ্যাট, টুইচ এবং আরও কয়েকটি সামাজিক মাধ্যমে নিষিদ্ধ রয়েছেন।

50
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail