Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভারতে সামাজিক দূরত্ব মেনে মোটরসাইকেল!

মোটরসাইকেলটি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যেটির ওপর চালক ও সহযাত্রীর মাঝে এক মিটার ব্যবধান বজায় থাকবে!

আপডেট : ০২ মে ২০২০, ১০:৫৬ এএম

করোনাভাইরাস সংকটে সামাজিক ব্যবধানের নিয়ম মেনে যাতায়াত সহজ করতে অভিনব এক মোটরসাইকেল তৈরি করেছেন ভারতের ত্রিপুরার এক বাসিন্দা৷ রাজ্যের খোদ মুখ্যমন্ত্রীও তার এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন৷

ভারতে করোনাভাইরাস সংকটের কারণে লকডাউনের কড়া নিয়ম না মানলে ভারতে পুলিশের হাতে শাস্তির ভয়ে বেশিরভাগ মানুষ ঘরবন্দি রয়েছেন৷ হেঁটে বেশিদূর যাওয়া কঠিন৷ এই সমস্যার চমৎকার সমাধান বের করেছেন ত্রিপুরা রাজ্যের রাজধানী আগরতলার তরুণ পার্থ সাহা৷

পার্থ এমন এক মোটরসাইকেল তৈরি করেছেন, যেটির ওপর চালক ও সহযাত্রীর মধ্যে এক মিটার ব্যবধান বজায় থাকবে৷ আসলে প্রথমে তিনি একটি পরিত্যক্ত মোটরসাইকেল কিনে নেন৷ তারপর ইঞ্জিন খুলে নিয়ে যানটিকে দুইভাগে ভাগ করেন৷ মাঝে এক মিটারের একটু দীর্ঘ রড বসিয়ে দুই অংশ আবার জোড়া দেন৷ বিকল ইঞ্জিন সরিয়ে ব্যাটারি ইউনিট বসিয়েছেন পার্থ৷ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার বেগে চলতে পারে অভিনব এই মোটরবাইক৷ ব্যাটারি চার্জ করতে তিনঘণ্টা সময় লাগে৷

৩৯ বছর বয়সী পার্থ স্কুলের গণ্ডীও পেরোতে পারেননি৷ মেকানিক হিসেবে কাজ করেন তিনি৷ নতুন বাইকটি বানিয়ে তিনি খুব খুশি৷ সংবাদ সংস্থা এএফপি’কে পার্থ জানান, লকডাউনের নিয়ম মেনে এক মিটার দূরত্ব বজায় রেখে তিনি আটবছরের মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে পথে বেরোতে পারছেন৷ তাকে স্কুলে পৌঁছে দিতে এবং তুলে আনতে সুবিধা হচ্ছে৷

করোনাভাইরাস সংকট মোকাবেলা করতে ভারত সরকার সহসাই লকডাউন ঘোষণা করায় বেশিরভাগ মানুষের মতো পার্থও সমস্যায় পড়েছিলেন৷ তারপর লকডাউনের মেয়াদ কমপক্ষে ৩ মে পর্যন্ত বাড়ানোর পর তিনি বুঝলেন, এই সংকট দ্রুত কেটে যাবার সম্ভাবনা নেই৷ তাই সঞ্চয়ের সামান্য অর্থ দিয়ে তিনি বাতিল মোটরসাইকেলটি বানান৷

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবও পার্থর এই উদ্যোগ দেখে অভিভূত৷ এক টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, “নেসেসিটি ইজ দ্য মাদার অফ ইনভেনসন! কোভিড-১৯ মহামারির সময় এমন অসাধারণ মোটরসাইকেল তৈরির জন্য আমি পার্থ সাহাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি৷”

About

Popular Links