Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মমতা ব্যানার্জি: ধৈর্য ধরুন নাহয় আমার মাথা কেটে নিন

শনিবার (২৩ মে) কলকাতা ও অন্যান্য কয়েকটি জায়গার রাস্তায় বিক্ষোভ করেছেন বহু মানুষ। তাদের অভিযোগ, আম্ফান-পরবর্তী পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার ক্ষেত্রে অত্যন্ত ধীরগতিতে এগোচ্ছে রাজ্য সরকার

আপডেট : ২৪ মে ২০২০, ১১:১৬ এএম

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে বিধ্বস্ত রাজ্যটির বিভিন্ন জেলায় বিদ্যুৎ সংযোগ ও অন্যান্য আবশ্যকীয় পরিষেবা শুরু হতে আরও সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন। ২০ মে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তাণ্ডবে পশ্চিমবঙ্গের পরিকাঠামো ও শস্যের মোট ক্ষতি হয়েছে ১ লক্ষ কোটি টাকা। 

এক প্রতিবেদনে এসব খবর জানিযেছে দেশটির গণমাধ্যম এনডিটিভি।

শনিবার (২৩ মে)  এক সংবাদ সম্মেলনে মমতা বলেন, “ওই বিপর্যয়ের পরে দু'দিন কেটেছে। আমরা দিন-রাত কাজ করে চলেছি। দয়া করে ধৈর্য ধরুন। আমরা চেষ্টা করছি যত দ্রুত সম্ভব সবকিছু আবার স্বাভাবিক করতে।”

এই পরিস্থিতিতে তৈরি হওয়া জন অসন্তোষ সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘আমি এটুকুই বলতে পারি, আমার মাথাটা কেটে নিন।'' প্রসঙ্গত, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে দেশটির সেনাবাহিনীর সাহায্য নেওয়া হচ্ছে বলে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

শনিবার কলকাতা ও অন্যান্য কয়েকটি জায়গার রাস্তায় বিক্ষোভ করেছেন বহু মানুষ। তাদের অভিযোগ, বিদ্যুৎ সংযোগ ফেরাতে ও পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার ক্ষেত্রে ধীরগতিতে এগোচ্ছে রাজ্য সরকার।

কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, ‘‘রাস্তার জমা জল পাম্পের সাহায্যে বের করতে, পড়ে থাকা গাছ সরাতে এবং জল সরবরাহ স্বাভাবিক করতে আরও পাঁচ-ছ'দিন সময় লেগে যাবে।''

এদিকে, সোমবার থেকে আন্তঃরাজ্য বিমান পরিষেবা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও পানিতে ভাসছে কলকাতার দমদম বিমানবন্দর। কর্তৃপক্ষ চেষ্টা করছে যত দ্রুত সম্ভব পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে।

 

About

Popular Links