Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কোয়ারেন্টাইনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রধান

সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাস টুইট করে জানান, এক কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংস্পর্শে এসেছিলেন বলেই কোয়ারেন্টাইনে যাচ্ছেন তিনি। তবে কোভিডের কোনো উপসর্গ তার নেই

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২০, ১২:৪০ পিএম

আইসোলেশনে চলে গিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রেইসাস। রবিবার (১ নভেম্বর) তিনি টুইট করে জানান, এক করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে এসেছিলেন বলেই কোয়ারেন্টাইনে যাচ্ছেন তিনি। তবে কোভিডের কোনো উপসর্গ তার নেই বলেও স্পষ্ট করে দিয়েছেন ডাব্লিউএইচও প্রধান।

টুইটারে তিনি জানান, “কোভিড-১৯ আক্রান্ত একজন ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিলাম বলে জানতে পেরেছি। আমি সুস্থ আছি এবং এর কোনরকম উপসর্গও নেই। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিধি অনুসারে আমি কিছুদিন সেল্ফ-কোয়ারেন্টাইনে থাকবো এবং বাড়ি থেকেই সব কাজ করবো।” 

গতবছরের শেষ অধ্যায় থেকে করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হয়েছে। প্রথমে চীনে ছড়িয়ে পড়ে এই ভাইরাস। ২০২০ সালের শুরু থেকে তা ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ে পৃথিবীর অন্যত্র। একসময় এই ভাইরাসের উৎস নিয়ে তীব্র বিতর্ক হয়েছে। এমনকী, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও এর প্রধানকে সরাসরি দায়ী করে সংস্থাটির ফান্ড বন্ধ করে দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

তবে এখনো করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কীভাবে এই ভাইরাসকে আটকানো যায়, তানিয়ে প্রায় প্রতিদিন সতর্কতামূলক নির্দেশ দেয় সংস্থাটি। যার অন্যতম, কোয়ারেন্টাইন। ঘেব্রেইসাস নিজে একাধিকবার বলেছেন, মানুষে মানুষে সংশ্রব ছিন্ন করতে পারলে এই ভাইরাসকে আটকানো সম্ভব। যারজন্য সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক কর্মকর্তা জার্মান সংবাদসংস্থা ডয়চে ভেলেকে জানান, “সংস্থার প্রধান ঠিক সেই কাজটিই করছেন। করোনাভাইরাসের কোনো উপসর্গ তার নেই। তবে কোভিড রোগীর সংস্পর্শে আসার সঙ্গেসঙ্গে তিনি নিজেকে আইসোলেট করেছেন। কোনো ঝুঁকি নেননি। সকলে যদি এই কাজটি করেন তাহলে করোনাভাইরাসের প্রকোপ অনেকাংশেই কমানো সম্ভব।”

About

Popular Links