Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ড্রোনের সাহায্যে মাদক-অস্ত্র পাচার!

ড্রোনে মাদক ও অস্ত্র লাগিয়ে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের একদিক থেকে অন্যদিকে রিমোটের সাহায্যে পাঠিয়ে, নিরাপদ জায়গায় ড্রোনটি নামানো হত

আপডেট : ১৭ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৫৩ এএম

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে ড্রোনের সাহায্যে মাদক ও অস্ত্র পাচারকারী একটি চক্রের সন্ধান পেয়েছে পাঞ্জাব পুলিশ।

ড্রাগ ও অস্ত্র পাচারের অভিনব চক্রের সন্ধান পাওয়ার পর এখনো পর্যন্ত দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাঞ্জাবে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে রিমোট চালিত ড্রোনের সাহায্যে দুইপারে পাচারের কাজ চলতো বলে জানিয়েছে পুলিশ। এক প্রতিবেদনে এখবর নিশ্চিত করেছে জার্মান বার্তাসংস্থা ডয়চে ভেলে।

সেখানে বলা হয়, ভারতের পাঞ্জাব পুলিশ একটি কোয়াডকপ্টার ড্রোন বাজেয়াপ্ত করেছে। এই ধরনের ড্রোন সাধারণত সেনাবাহিনী সীমান্তে ব্যবহার করে। নজরদারির জন্য ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে এধরনের ড্রোন ব্যবহার করা হয়। সেই ড্রোনকেই নিজেদের কাজে লাগিয়েছিল পাচারকারীরা। 

ড্রোনে ড্রাগ ও অস্ত্র লাগিয়ে তা সীমান্তের একদিক থেকে অন্যদিকে রিমোটের সাহায্যে পাঠিয়ে দেওয়া হতো। নিরাপদ জায়গায় সেই ড্রোন নামানো হত। পাচারকারীরা প্রয়োজনীয় জিনিস খুলে ফের তা পাঠিয়ে দিত সীমান্তের অন্যপ্রান্তে। পুলিশ জানিয়েছে, পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন ও খালিস্তানপন্থী সংগঠনের যোগাযোগ মিলেছে ওই চক্রে। ধৃত ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করে নতুন নতুন তথ্য মিলছে। সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে চক্রের অন্য হোতাদের।

যে ড্রোনটি পুলিশ বাজেয়াপ্ত করেছে, তার থেকে একটি .৩২ বোরের পিস্তল, গুলি ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। যে দুইব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে তারা দু’জনই পাঞ্জাবের বাসিন্দা। 

অমৃতসর গ্রামীণ পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুইজনকে আটক করে। তাদের জেরা করে খালিস্তানপন্থী সংগঠনের যোগ মিলেছে বলে পুলিশ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে।

পুলিশের ধারণা, এই ধরনের আরো বেশকিছু চক্র সীমান্তে কাজ করছে। তাদের খোঁজেও তল্লাশি শুরু হয়েছে।

About

Popular Links