Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

হুইলচেয়ারে করে বেয়ে উঠলেন আকাশচুম্বী ভবন

লাই চি ওয়াই হংকংয়ের প্রথম ব্যক্তি যিনি হুইলচেয়ারে বাধা থাকা অবস্থায় ২৫০ ফুটের বেশি একবারে চড়েছেন

আপডেট : ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০২:০৭ পিএম

শারীরিক অক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও হুইল চেয়ারে করে আকাশচুম্বী ভবন বেয়ে উঠেছেন লাই চি ওয়াই নামের এক ব্যক্তি। এ ঘটনাটি ঘটেছে হংকংয়ে। লাই চি ওয়াই এই ঝুঁকিপূর্ণ কাজটি করেছেন মেরুদণ্ডের সমস্যায় ভোগা রোগীদের চিকিৎসায় তহবিল সংগ্রহের জন্য। 

সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক পোস্ট জানায়, গত ১৬ জানুয়ারি লাইচ চি ওয়াই হংকংয়ের ১ হাজার ৫০ ফুট উচ্চতার নিনা টাওয়ারে দড়ির সাহায্যে আরোহণ শুরু করেন। উচ্চতায় এটি আইফেল টাওয়ারের সমান। আরোহণের সময় তিনি নিজেকে হুইল চেয়ারের সাথে বেঁধে রেখেছিলেন। 

শুরুতে বাতাসের গতি স্বাভাবিক থাকলেও ৮০০ ফুট উচ্চতায় পৌঁছালে বাতাসের তীব্রতা বাড়তে থাকে। এতে হুইলচেয়ারসহ তিনি বাতাসে পাক খেতে থাকেন। তবুও তিনি চেষ্টা চালিয়ে যান। দীর্ঘ ১০ ঘণ্টা চেষ্টার পর কাঁচের দেয়াল আর ঝড়ো বাতাসের মাঝে লড়াই করে ৯৮৪ ফুট উচ্চতায় তিনি হার মানেন। পরে তাকে উদ্ধারকারী দলের মাধ্যমে সাহায্যে নামিয়ে আনা হয়। 

এদিকে লাই চি ওয়াই তার লক্ষ্যে পৌছাতে না পারলেও তহবিলে জমা হয়েছে প্রায় ৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশি। আর অনুপ্রাণিত করেছেন বিশ্বব্যাপী লাখো মানুষকে। তিনি বলেন, “দড়ি বেয়ে ওঠার সময় আমার মনেই হয়নি আমার কোনো সমস্যা আছে। আমি যা ইচ্ছা করতে পারি।  আমি একটি মেসেজ দেওয়ার চেষ্টা করেছি সবাইকে। কিছু মানুষ শারীরিক প্রতিবন্ধকতা নিয়ে বেঁচে থাকা মানুষদের বুঝতে চায় না। তারা ভাবে আমরা দুর্বল, আমাদের সাহায্য দরকার। আমাদের করুণা দেখায়। কিন্তু আমি তাদের বলতে চাই, একজন শারীরিকভাবে অক্ষম মানুষও চাইলে অনেক কিছু করতে পারে। সেও সবার মাঝে আশার আলোর সঞ্চার করতে পারে।”

লাই চি পাহাড় আরোহণে চারবারের এশিয়া চ্যাম্পিয়ন এবং বিশ্বব্যাপী তার অবস্থান অষ্টম। পাহাড় এবং উঁচু ভবনে চড়াই ছিল তার নেশা। ২০১১ সালে মারাত্মক এক গাড়ি দুর্ঘটনায় তার কোমরের নিচের অংশ প্যারালাইজড হয়ে যায়। এতে হার মেনে নেননি তিনি। দুর্ঘটনার ছয় মাস পরই আবার শুরু করেন আরোহণ। হুইল চেয়ারে বসেই আরোহণের বেশ কয়েকটি রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

About

Popular Links