Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ইরানে পরমাণুকেন্দ্রে হামলা, পেছনে ইসরায়েল?

ইসরায়েলি গণমাধ্যমে গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে খবর প্রকাশ করা হচ্ছে যে, এটা ইসরায়েলি সাইবার হামলার ফলাফল ছিল

আপডেট : ১২ এপ্রিল ২০২১, ১২:৩০ পিএম

ইরানের একটি পারমাণবিক কেন্দ্রে “অন্তর্ঘাতমূলক” হামলা হয়েছে বলে দেশটির শীর্ষ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। এর একদিন আগেই ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচীর নতুন যন্ত্রপাতির তথ্য প্রকাশ করেছিল দেশটি।

সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, তেহরানের দক্ষিণে নাতানজ পারমাণবিক কেন্দ্রটি ওই ঘটনায় বিদ্যুৎবিহীন হয়ে যায়। এই হামলার জন্য কাউকে নির্দিষ্ট করে দায়ী করেনি ইরান।

রবিবার (১১ এপ্রিল) ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থার মুখপত্র রেহরোজ কামালভান্দি বলেছেন, রবিবার সকালে পারমাণবিক কেন্দ্রের বৈদ্যুতিক নেটওয়ার্কে একটা ঘটনা ঘটেছে। তিনি যদিও বিস্তারিত জানাননি। 

তবে ইরানের ফার্স নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, এতে কোন হতাহত বা লিকেজের ঘটনা ঘটেনি।

পরবর্তীতে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সংস্থাটির প্রধান আলি আকবর সালেহীর একটি বিবৃতি পাঠ করা হয়, যেখানে তিনি ওই ঘটনাকে “নাশকতামূলক হামলা” এবং “পারমাণবিক সন্ত্রাস” বলে বর্ণনা করেছেন।

''এই জঘন্য ঘটনার নিন্দা জানিয়ে ইসলামিক রিপাবলিক অফ ইরান আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থাকে আহবান জানাচ্ছে যেন তারা পারমাণবিক সন্ত্রাসের বিষয়টিকে মোকাবেলা করে।'' বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

তবে ইসরায়েলি গণমাধ্যমে গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে খবর প্রকাশ করা হচ্ছে যে, এটা ইসরায়েলি সাইবার হামলার ফলাফল ছিল।যদিও এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি ইসরায়েল।

ইরানে হামলা এমন সময়ে হলো যখন ২০১৫ সালের একটি পারমাণবিক চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করার বিষয়ে কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু হয়েছে। সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শাসনামলে ওই চুক্তি থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নেয় যুক্তরাষ্ট্র।

এর আগে শনিবার নাতানজ পারমাণবিক কেন্দ্রে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার কাজে ব্যবহৃত সেন্ট্রিফিউজ সংযোজন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। 

 গত বছরের জুলাই মাসে নাতানজ কেন্দ্রের সেন্ট্রিফিউজ স্থাপন কেন্দ্রে আগুনের ঘটনা ঘটেছিল। সেই ঘটনাকে অন্তর্ঘাতমূলক হামলা বলে দাবি করেছিল ইরান।

About

Popular Links