Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কৃষকের ভুলে বেলজিয়াম-ফ্রান্সের সীমান্ত নিয়ে টানাটানি!

পথের মাঝে পড়ে থাকা পাথর সরিয়ে দুই দেশের ঘুম হারাম করে দিয়েছেন বেলজিয়ামের এক কৃষক

আপডেট : ০৪ মে ২০২১, ০৮:৪২ পিএম

চলার পথে পাথর দেখলে তা সরিয়ে হাঁটাই স্বাভাবিক। কিন্তু ছোটখাট অসাবধানতার কারণে অনেক সময় বড় সমস্যা সৃষ্টি হয়ে যায়। তেমনই সমস্যার সৃষ্টি করেছেন বেলজিয়ামের এক কৃষক। পথের মাঝে পড়ে থাকা পাথর সরিয়ে এখন দুই দেশের ঘুম হারাম করে দিয়েছেন তিনি।

বেলজিয়ামের সংবাদমাধ্যম সুদিনফো'র বরাত দিয়ে জানা যায়, বেলজিয়ামের ওই কৃষক সাধারণ পাথর ভেবে ফ্রান্স ও বেলজিয়ামের সীমানা নির্ধারনী পাথর সরিয়ে কৃষি জমির রাস্তা পরিষ্কার করেছিলেন। কিন্তু তার এই অসাবধনতার কারণে দু দেশে শুধু আলোড়নই সৃষ্টি হয় নি, বরং সীমানাই বদলে গেছে। এমনকি এই কান্ডের ফলে ফ্রান্সের সীমানা ছোট এবং বেলজিয়ামের সীমানা বেড়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, একজন স্থানীয় ইতিহাসবিদ বনের রাস্তা দিয়ে হাঁটার সময় লক্ষ্য করেন সীমানা চিহ্নিত করার পাথরটি ২ দশমিক ২৯ মিটার বা সাড়ে সাত ফুট সরে গেছে। তিনি তখনই বুঝতে পারেন জমি চাষের সময় ট্রাক্টরের সামনে পাথরটি আসায় বিরক্ত হয়ে ফ্রান্সের সীমানায় সরিয়ে রেখেছিলেন বেলজিয়ামের কৃষক।

তবে মজার বিষয় হচ্ছে এ ঘটনায় দু'দেশের মধ্যে আন্তর্জাতিক কোন্দল সৃষ্টির পরিবর্তে হাসির বন্যা বয়ে গেছে।

ফরাসি সংবাদমাধ্যম টিএফওয়ানকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বেলজিয়ামের মেয়র ডেভিড লেভোক্স জানান, সে (কৃষক) বেলজিয়ামকে বড় আর ফ্রান্সকে ছোট বানিয়ে ফেলেছে। যদিও এটা খুব বুদ্ধিমানের কাজ নয়। এর কারণে দুই জমির মালিকদের মাথাব্যথা শুরু হয়ে গিয়েছে। দুই দেশের কথা না হয় বাদই দিলাম।"

ইতিহাস বলছে, ফ্রান্স ও বেলজিয়ামের মধ্যের ৬২০ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমানা আনুষ্ঠানিকভাবে ওয়াটারলুর যুদ্ধে নেপোলিয়নের পরাজয়ের পাঁচ বছর পর ১৮২০ সালে কর্ট্রিজক চুক্তির অধীনে নির্ধারণ করা হয়েছিল। যে পাথর নিয়ে এত কান্ড তার গায়েও ১৮১৯ সন খোদাই করা আছে।

তবে বেলজিয়ামের মেয়র খুশী থাকলেও প্রতিবেশী ফ্রান্সের বসনিজ-সুর-রকের মেয়র অরেলি ওয়েলোনেক কিন্তু এ ঘটনায় মোটেও খুশী হননি। তিনি বলেন, "আমাদের উচিত নতুন কোনো সীমান্ত যুদ্ধ যেন না হয় সেই বিষয়টি নজরে রাখা।"

যেহেতু দু'দেশেরই ইচ্ছা ঘটনাটি কোনো ঝামেলা ছাড়াই মিটিয়ে ফেলার তাই ওই কৃষকরে পাথরটিকে তার আগের স্থানে পুনরায় রেখে আসার জন্য বলা হয়েছে। আর যদি সে কাজটি না করে তবে তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলাও হতে পারে বলে জানিয়েছেন বেলজিয়ামের মেয়র।

About

Popular Links