Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কঙ্গোয় অগ্ন্যুৎপাত, প্রাণ বাঁচাতে বাড়িঘর ছাড়ছে হাজার মানুষ


নাইরাগঙ্গোকে পৃথিবীর অন্যতম ভয়ংকর সুপ্ত আগ্নেয়গিরি বিবেচনা করা হয়

আপডেট : ২৩ মে ২০২১, ০৩:৪৮ পিএম

ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক কঙ্গোর গোমা শহরের পার্শ্ববর্তী নাইরাগঙ্গো আগ্নেয়গিরি থেকে অগ্ন্যুৎপাত শুরু হওয়ায় প্রাণহানির আশঙ্কায় অন্তত তিন হাজার লোক পাশের দেশ রুয়ান্ডায় চলে গেছে।

শনিবার (২২ মে) অগ্ন্যুৎপাত শুরু হওয়ার পর সরকার লোকজনকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ জারি করে।

রুয়ান্ডার সম্প্রচার সংস্থা এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, আঞ্চলিক রাজধানী গোমা থেকে অন্তত তিন হাজার লোক তাদের দেশে চলে এসেছে।

কঙ্গোতে নিযুক্ত রুয়ান্ডার রাষ্ট্রদূত ভিনসেন্ট কারেগা টুইটারে বলেছেন, সীমান্ত উন্মুক্ত রয়েছে। প্রতিবেশীদের শান্তিপূর্ণভাবে স্বাগত জানানো হচ্ছে।

এর আগে ২০০২ সালের ১৭ জানুয়ারি আগ্নেয়গিরিটি অগ্ন্যুৎপাত ঘটায়। সে সময় ২৫০ জন নিহত হয়েছিলেন। উদ্বাস্তু হয়েছিলেন প্রায় এক লাখ ২০ হাজার মানুষ। তার আগে ১৯৭৭ সালে এটি অগ্ন্যুৎপাত ঘটায়। তখন ছয় শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়। নিখোঁজ হন অনেকে। সব মিলিয়ে নাইরাগঙ্গোকে পৃথিবীর অন্যতম ভয়ংকর সুপ্ত আগ্নেয়গিরি বিবেচনা করা হয়।


About

Popular Links