Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঈদকে সামনে রেখে জম্মু-কাশ্মীরে পশু জবাই নিষিদ্ধ

এ আদেশটি ওই এলাকায় আরও উত্তেজনা বাড়িয়ে তুলতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা

আপডেট : ১৭ জুলাই ২০২১, ০৪:৩৬ পিএম

ভারতের মুসলিম অধ্যুষিত রাজ্য জম্মু-কাশ্মীরে আসন্ন ঈদ-উল-আজহাকে সামনে রেখে পশু জবাই নিষিদ্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে

বার্তা সংস্থা এএফপি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) গভীর রাতে প্রকাশিত এ আদেশটি ওই এলাকায় আরও উত্তেজনা বাড়িয়ে তুলতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। 

প্রাণী কল্যাণ আইনকে উদ্ধৃত করে “এ্যানিমাল ওয়েলফেয়ার বোর্ড অফ ইন্ডিয়া” পুলিশ এবং কর্তৃপক্ষকে পশুপাখির অবৈধ হত্যাকাণ্ড বন্ধ করতে এবং অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের "নির্দেশ দিয়েছে।

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কাছে গরুকে পবিত্র বলে বিবেচনা করা হয় এবং এর আগেও ভারতের অনেক রাজ্যে গরু জবাই নিষিদ্ধ করা হয়েছে। নতুন আদেশটি প্রথমবারের জন্য সমস্ত প্রাণী হত্যার উপর জারি করা নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়িয়েছে।

মুসলমানরা সাধারণত কোরবানির জন্য ছাগল, ভেড়া বা গরু জবাই করে থাকে। কাশ্মীরের মুসলিম ধর্মীয় সংস্থার জোট “মুত্তাহিদা মজলিস-এ-ওলামা” সরকারি এই পদক্ষেপে “তীব্র ক্ষোভ” প্রকাশ করেছেন। 

তারা বলেন, হযরত ইব্রাহিম (আঃ)-কে সম্মান জানাতে কোরবানি করা হয়। এই দিনটি ধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। 

তারা সরকারকে আদেশটি প্রত্যাহারের অনুরোধ করেছিল যা রাষ্ট্রের মুসলমানদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়, কারণ বিষয়টি সরাসরি তাদের ধর্মীয় স্বাধীনতা এবং তাদের ব্যক্তিগত আইন লঙ্ঘন করে।

কাশ্মীরের শ্রীনগরের এক দোকানদার বলেন, এই আদেশটি কাশ্মীরের ওপর মুসলিম বিরোধী নীতিমালা চাপিয়ে দেওয়ার নতুন চিহ্ন।

স্থানীয়রা বলেন, ২০১৯ সালে এই অঞ্চলের বিশেষ মর্যাদা বাতিল হয়ে যাওয়ার পর থেকেই তারা রাজনৈতিক মতামত প্রকাশের জন্য প্রতিশোধের ভয় পান।

২০১৯ সালের আগস্টে নয়াদিল্লির বিশেষ স্বায়ত্তশাসিত অবস্থান প্রত্যাহার করার পর থেকে ওই এলাকার উদ্বেগ আরও বেড়েছে। 

About

Popular Links