Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কাবুলে প্রবেশ করা শুরু করেছে তালেবানরা

হেলিকপ্টার দিয়ে তাদের কূটনীতিকদের দূতাবাস থেকে সরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২১, ০৩:৫৬ পিএম

তালেবান বিদ্রোহীরা রবিবার (১৫ আগস্ট) আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে প্রবেশ করা শুরু করেছে।  এছাড়া, হেলিকপ্টার থেকে মার্কিন কূটনীতিকদের দূতাবাস থেকে সরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম রয়টার্সকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, তালেবানরা চারদিক থেকে আসছে। তবে এ বিষয়ে তিনি বিস্তারিত কিছু জানাননি।

এদিন বিনা লড়াইয়ে জালালাবাদ দখল করে নেয় তালেবানরা। তারা পাকিস্তানের সাথে কাছাকাছি তোর্খাম সীমান্ত পোস্টটিও দখল করে নেয়। এছাড়া, উত্তরাঞ্চলীয় শহর মাজার-ই-শরিফ দখল করে নেয়। এর মাধ্যমে আফগানিস্তানের ৩৪টি প্রদেশের মধ্যে অন্তত ২০টি প্রদেশের রাজধানীর নিয়ন্ত্রণ এখন তালেবানের দখলে।

এদিকে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে আফগান প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, কাবুল শহরটির পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। কাবুলের আশেপাশে বেশ কয়েকটি পয়েন্টে গুলির শব্দ শোনা গেলেও সেখানে আক্রমণের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

গত সপ্তাহেই একটি মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা অনুমান করেছিল কাবুলের নিয়ন্ত্রণ কমপক্ষে তিন মাস ধরে রাখা সম্ভব।

কাবুল বিমানবন্দর থেকে "কোর" ইউএস টিমের সদস্য হিসেবে কাজ করা এক মার্কিন কর্মকর্তা জানান, ন্যাটোর এক কর্মকর্তা বলেছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের বেশ কয়েকজন কর্মী রাজধানীর একটি নিরাপদ ও অজ্ঞাত স্থানে চলে গেছে।

কাতারের রাজধানী দোহায় অবস্থানকারী এক তালেবান নেতার বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, কাবুলে যোদ্ধাদের সহিংসতা থেকে বিরত থাকতে বলেছে তালেবান। কেউ শহরটি ত্যাগ করতে চাইলে, তাদের এ সুযোগ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে বাহিনীটি। এছাড়া, নারীদের নিরাপদে অবস্থান করার জন্যও অনুরোধ জানানো হয়েছে।  

দেশটির রাষ্ট্রপতি আশরাফ ঘানির কাছ থেকে পরিস্থিতি সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। শনিবার (১৪ আগস্ট) তিন জানিয়েছিলেন, তিনি সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এবং আন্তর্জাতিক অংশীদারদের সঙ্গে জরুরি পরামর্শ করছেন।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে বিগত ২০ বছর ধরে আফগানিস্তানে যুদ্ধ চলছিল। সেখান থেকে যুক্তরাষ্ট্র এবং অন্যান্য দেশ সেনা প্রত্যাহার শুরু করার পর সেখানে আবার তীব্র লড়াই শুরু হয়। গত মে মাস থেকে আফগানিস্তানে নতুন উদ্যমে লড়াই শুরু করার পর সাম্প্রতিক সময়ে তালেবানরা খুব দ্রুত বিস্তীর্ণ এলাকা দখল করে।

About

Popular Links