Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভারতের আচরণে মনে হয়েছে আফগান নারী সাংসদ যেন 'অপরাধী'!

তিনি জানান, এই একই পাসপোর্ট নিয়ে এর আগেও বহুবার ভারতে এসেছেন

আপডেট : ২৮ আগস্ট ২০২১, ০২:৩৫ পিএম

ইস্তাম্বুল থেকে দিল্লিতে আসা এক নারী আফগান সাংসদ অভিযোগ করেছেন, কূটনৈতিক পাসপোর্ট থাকা সত্ত্বেও তাকে অপমান করে বিমানবন্দর থেকে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি মাসের ১৪ তারিখ তালেবানরা কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার কয়েকদিন পর ২০ আগস্ট এ ঘটনাটি ঘটেছে।

আফগানিস্তানের হাউস অব দ্য পিপল-এর সদস্য রঙ্গিনা কারগার দেশটির ফারিয়াব প্রদেশের প্রতিনিধি এবং এক দশক ধরে সাংসদ ছিলেন। তিনি একজন কূটনৈতিক পাসপোর্টধারী যা ভারতে তাকে ভিসা-মুক্ত ভ্রমণের অনুমতি দেয়। 

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কারগার বলেন, তিনি এই একই পাসপোর্টে এর আগে বহুবার ভারত ভ্রমণ করেছেন।

৩৬ বছর বয়সী এই নারী সাংসদ বলেন, এর আগে বিমানবন্দরে চেকপোস্ট দিয়ে যাওয়ার সময় তার কোনও সমস্যা হয়নি। কিন্তু ২০ আগস্ট ইমিগ্রেশন কর্মকর্তারা তাকে বাধা দেয়। এবং তাকে ঊর্ধ্বতনদের সাথে পরামর্শ করার কথা জানায়।

তিনি আরও জানান, “পরবর্তীতে আমাকে একই বিমান সংস্থা “ফ্লাই দুবাই”তে করে দুবাই হয়ে ইস্তাম্বুলে ফেরত পাঠানো হয়েছে।”

কারগার দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, “তারা আমাকে নির্বাসিত করেছে। আমাকে অপরাধী হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। দুবাইতে আমাকে আমার পাসপোর্ট দেওয়া হয়নি। একবারে ইস্তাম্বুলে যাওয়ার পর ফেরত দেওয়া হয়েছে।”

কারগার আরও বলেন, আমাকে ফেরত পাঠানোর কোনও কারণ জানানো হয়নি। সম্ভবত কাবুলের পরিবর্তিত রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে নিরাপত্তার কথা ভেবে এমন করেছে।

তিনি বলেন, “তারা আমার সাথে যা করেছে তা ভালো করেনি। কাবুলে পরিস্থিতি পরিবর্তিত হয়েছে এবং আমি আশা করি ভারত সরকার আফগান নারীদের সাহায্য করবে।”

About

Popular Links