Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত ৫০

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে বন্দুকধারী এসব সন্ত্রাসীদের আক্রমণে গ্রামবাসীরা আতঙ্কে দিন পার করছে

আপডেট : ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ০৮:২৯ পিএম

নাইজেরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জামফারার রাজ্যে সাম্প্রতিক সহিংসতায় মোটরবাইকে থাকা বন্দুকধারীরা একটি গ্রামে লুটপাট চালিয়ে ৫০ জনেরও বেশি গ্রামবাসীকে হত্যা করেছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে সন্ত্রাসীদের আতঙ্কে হাজার হাজার মানুষ পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। মুক্তিপণের জন্য স্কুলগুলিতে গণ-অপহরণে বিশ্বব্যাপী কুখ্যাতিও অর্জন করেছে দস্যুরা।

স্থানীয় প্রবীণ আবদুল্লাহি কারমান উনাশি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সকে বলেন, শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে বন্দুকধারীরা কেবি রাজ্যের ডানকাদে গ্রামে প্রবেশ করে সৈন্য ও পুলিশ সদস্যদের ওপর গুলিবর্ষণ করে। দস্যুদের আক্রমণে নিরাপত্তা বাহিনী পিছু হটতে বাধ্য হয়। পরে দস্যুরা দোকান ও শস্যের সাইলো পুড়িয়ে দেয় এবং ১৫ জানুয়ারি ভোরে গবাদিপশুগুলো নিয়ে যায়।

কারমান জানান, বন্দুকধারীরা দুজন সৈন্য, একজন পুলিশ অফিসার এবং ৫০ জন গ্রামবাসীকে হত্যা করেছে। তারা ডানকাদে সম্প্রদায়ের নেতা এবং অনেক গ্রামবাসীকে অপহরণ করেছে। অপহৃতদের অধিকাংশই নারী ও শিশু।

অপহৃত সাম্প্রদায়িক নেতার ছেলে দিদজি উমর বুনু জানান, ১৬ জানুয়ারি বন্দুকধারীরা ফিরে এসে আরও বাড়িঘরে আগুন দিয়েছে।

কেবির পুলিশের মুখপাত্র নাফিউ আবুবাকারের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।

কেব্বি জামফারার সাথে একটি সীমানা ভাগ করে, যেখানে সরকার সেপ্টেম্বরে একটি সামরিক আক্রমণ শুরু করে এবং একটি টেলিকম ব্ল্যাকআউট চাপিয়ে দেয় রাজ্যটিকে সন্ত্রাসী বলে ডাকা গ্যাং থেকে মুক্তি দিতে।

প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুহারি এক বিবৃতিতে জানান, সামরিক বাহিনী কেবির পাশে নাইজার রাজ্যে একটি বড় সামরিক অভিযান শুরু করেছে।

About

Popular Links