Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, সারাদেশে লকডাউন

১ লাখ ৬ হাজার জনসংখ্যা অধ্যুষিত দেশ টোঙ্গায় কমপক্ষে ৬০% মানুষ দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন

আপডেট : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৪:৩৬ পিএম

টোঙ্গার রাজধানী নুকুয়ালোফায় নতুন করে দুজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় দেশটিতে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ছয়টা থেকে এ লকডাউন শুরু হবে। পাশাপাশি প্রতি ৪৮ ঘণ্টা পরপর পরিস্থিতি পর্যালোচনা করবে দেশটির সরকার। ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদন এ খবর জানিয়েছে।

দেশটি অনেকটাই ভাইরাসমুক্ত দেশ হিসেবে বিবেচিত ছিল। গত অক্টোবরে সেখানে শুধু একজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল।

টোঙ্গার প্রধানমন্ত্রী সিয়াওসি সোভালেনি বলেন, “সাম্প্রতিক অগ্ন্যুৎপাত ও সুনামির পর থেকে বিদেশি ত্রাণ আসছে এমন একটি বন্দরে আক্রান্ত ওই দুই ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন। এ মুহূর্তে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো সংক্রমণ হার কমানো এবং যারা আক্রান্ত হয়েছেন, তাদের সুস্থ করা। লকডাউন চলার সময় এক দ্বীপ থেকে অন্য দ্বীপে কোনো নৌকা চলাচল করতে দেওয়া হবে না এবং অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটও চলাচল করবে না।”

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সমুদ্রের তলদেশে অগ্ন্যুৎপাতের পর সৃষ্ট সুনামিতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে টোঙ্গা। এমন অবস্থায় দেশটি প্রচণ্ডভাবে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের নেতৃত্বাধীন বিদেশি সহায়তার ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ে। বিশেষ করে এসব দেশ থেকে বিশুদ্ধ পানি, আশ্রয়কেন্দ্রে ব্যবহৃত উপকরণ এবং উদ্ধারকাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম পাঠানো হয়। উপকূলে ত্রাণ নিয়ে নোঙর করা জাহাজ থেকে যেন করোনাভাইরাস ছড়িয়ে না পড়ে, তা নিশ্চিত করতে সম্প্রতি কঠোর বিধি আরোপ করে টোঙ্গা সরকার।

উল্লেখ্য, ১ লাখ ৬ হাজার জনসংখ্যা অধ্যুষিত দেশ টোঙ্গায় কমপক্ষে ৬০% মানুষ দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন। তবে দেশটির দুর্গম কিছু এলাকায় স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা সীমিত থাকায় সেখানকার বাসিন্দারা করোনাভাইরাসের প্রকোপে পড়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন।

About

Popular Links