Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মার্কিন নাগরিকদের দ্রুত ইউক্রেন ছাড়ার নির্দেশ বাইডেনের

এমনকি ইউক্রেনে থাকা মার্কিন নাগরিকরা রাশিয়ার সামরিক আক্রমণের শিকার হলেও তাদের উদ্ধারে সেনা পাঠানো হবে না

আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৪:৫২ পিএম

রাশিয়ার সামরিক আক্রমণের সম্ভাবনা থাকায় মার্কিন নাগরিকদের অবিলম্বে ইউক্রেন ছাড়ার আহ্বান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, “আমেরিকান নাগরিকদের এখনই ইউক্রেন ছাড়া উচিত।”

বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক সম্প্রচার-মাধ্যম এনবিসি নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জো বাইডেন এ আহ্বান জানান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, “এমন না যে, আমরা কোনো সন্ত্রাসী সংগঠনের বিপক্ষে মোকাবিলা করছি। আমরা পৃথিবীর অন্যতম বড় সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করছি। পরিস্থিতি খুবই জটিল এবং যে কোনো সময় তা বদলে অন্যদিকে মোড় নিতে পারে।”

এমনকি ইউক্রেনে থাকা মার্কিন নাগরিকরা রাশিয়ার সামরিক আক্রমণের শিকার হলেও তাদের উদ্ধারে সেনা পাঠানো হবে না বলেও জানিয়ে রেখেছেন বাইডেন।

তিনি বলেন, “এটা একটা বিশ্বযুদ্ধ। মার্কিনরা এবং রাশিয়ানরা যখন একে অপরের দিকে গুলি চালাতে শুরু করে তখন আমরা একটি ভিন্ন পৃথিবীতে অবস্থান করি।”

এদিকে, প্রতিবেশী দেশ বেলারুশের সঙ্গে যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করেছে রাশিয়া। বেলারুশে কতজন সৈন্য মোতায়েন করা হয়েছে তা সঠিকভাবে না জানা গেলেও যুক্তরাষ্ট্রের অনুমান, সংখ্যাটা আনুমানিক ৩০ হাজার।

সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের প্রায় তিন দশক পর ভারী অস্ত্রসহ রাশিয়ার সেনা মোতায়েনকে পুরো ইউরোপের জন্য হুমকিস্বরূপ বলে দাবি করেছে ন্যাটো।

বাইডেন জানান, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন হয়ত মার্কিন নাগরিকদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলার মতো বোকামি করবেন না।

জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলজ সতর্ক করে বলেছেন, “ইইউর সদস্য এবং ন্যাটোর মিত্র হিসেবে আমাদের ঐক্য ও সংকল্পকে অবমূল্যায়ন করা রাশিয়ার উচিত না।”

মার্কিন সেনাবাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার অনুমান, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে পৌঁছে রাশিয়া পূর্ণশক্তি নিয়ে আক্রমণ করতে পারে।

পেন্টাগন জানিয়েছে, সামরিক মহড়ায় “ভুল আক্রমণের সম্ভাব্যতা কমাতে” যুক্তরাষ্ট্র এবং বেলারুশের প্রতিরক্ষা প্রধানদের মধ্যে টেলিফোনে বৈঠক হয়েছে।

কৃষ্ণ সাগর এবং পার্শ্ববর্তী আজভ সাগরে নৌ মহড়ার জন্য বসফরাসের মাধ্যমে ৬টি যুদ্ধজাহাজ পাঠিয়েছে রাশিয়া। রাশিয়ান সেনাবাহিনীর উপস্থিতিকে উভয় সমুদ্র থেকে ইউক্রেনকে বিচ্ছিন্ন করার একটি অভূতপূর্ব প্রচেষ্টা হিসেবে নিন্দা জানিয়েছে ইউক্রেন।

About

Popular Links