Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

যুক্তরাষ্ট্র: ইউক্রেন সমস্যা দ্রুত শেষ হবে না

জাতিসংঘে সোমবারও ইউক্রেন সংকট নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। সেখানে মার্কিন প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ইউক্রেন সমস্যা দ্রুত শেষ হবে না। বিশ্বকে দীর্ঘ যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে

আপডেট : ০৮ মার্চ ২০২২, ০৩:৩৭ পিএম

ইউক্রেন এবং রাশিয়ার তৃতীয় বৈঠক ফলপ্রসূ হয়নি। কিয়েভ, খারকিভসহ একাধিক শহরে তীব্র লড়াই অব্যাহত রয়েছে। তারইমধ্যে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কিকে কিয়েভ ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার কথা বলা হয়েছিল।

ইউক্রেনের গণমাধ্যমের খবর, জেলেনস্কি কিয়েভ ছেড়ে যেতে চাননি।

এদিকে জাতিসংঘে সোমবারও ইউক্রেন সংকট নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। সেখানে মার্কিন প্রতিনিধি জানিয়েছেন, লড়াই দীর্ঘ হবে। সহজে এই সংকট কাটবে না। রাশিয়া তার যোগ্য জবাব পাবে।

সোমবার (৭ মার্চ) সকাল ১০টা থেকে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছিল রাশিয়া। ইউক্রেনের একাধিক শহর থেকে সাধারণ মানুষ যাতে নিরাপদে পালাতে পারেন, সে কারণেই সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়েছিল।

ইউক্রেনের গণমাধ্যমের দাবি, সোমবার রাতে ফের হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। বস্তুত, এদিনই বেলারুশের সীমান্তে রাশিয়া এবং ইউক্রেনের প্রতিনিধি তৃতীয়বার আলোচনায় বসেছিলেন।

ইউক্রেন বলেছিল, যুদ্ধবিরতির মাধ্যমে পরিস্থিতি সামান্য হলেও সদর্থক দিকে ঘুরেছে। কিন্তু এরপরেই দুই দেশে দুপক্ষের বিরুদ্ধে বিষোদগার করতে শুরু করে। শেষ পর্যন্ত আলোচনা ভেস্তে যায়। তবে অদূর ভবিষ্যতে ফের আলোচনার সম্ভাবনা আছে। দুই দেশই সে রাস্তা খোলা রেখেছে।

এদিকে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ফের নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করেছে জাপান এবং অস্ট্রেলিয়া। জাপান রাশিয়া এবং বেলারুশের একাধিক কর্মকর্তার সম্পত্তি ফ্রিজ করার কথা বলেছে। টয়োটা রাশিয়ায় তাদের কারখানা বন্ধ করে দিয়েছে। অন্য জাপানি গাড়ি সংস্থাগুলিও একই পথে হাঁটবে বলে মনে করা হচ্ছে।

একাধিক জাপানি সংস্থাও রাশিয়ায় তাদের সংস্থা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রাশিয়া থেকে নিজেদের নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। অস্ট্রেলিয়াও এদিন রাশিয়ার প্রোপাগ্যান্ডিস্টদের উপর নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করেছে।

এরইমধ্যে ইউক্রেনের প্রশাসন দাবি করেছে এক উচ্চ পর্যায়ের রাশিয়ার সামরিক কর্মকর্তা লড়াইয়ে “নিহত” হয়েছেন। ইউক্রেনের দাবি ওই কর্মকর্তার নাম ভাইটালি গেরাসিমভ। তিনি জেনারেল পর্যায়ের অফিসার।

নেদারল্যান্ডসের তদন্তমূলক সাংবাদিক ক্রিস্তো গ্রেজেভও টুইট করে বলেছেন, খারকিভে লড়াই চলাকালীন ওই উচ্চপদস্থ অফিসারের মৃত্যু হয়। রাশিয়ার সূত্র তাকে একথা জানিয়েছে। তবে সরকারিভাবে রাশিয়া এখনো এই খবরের সত্যতা স্বীকার করেনি।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র ফের অভিযোগ করেছে, রাশিয়া সিরিয়ার স্ট্রিট ফাইটারদের এই লড়াইয়ে ব্যবহার করছে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত তাদের অভিযোগের পক্ষে কোনো তথ্যসূত্র উল্লেখ করতে পারেনি।

ইউক্রেন জানিয়েছে, “নিহত” রাশিয়ার জেনারেল ক্রাইমিয়ার যুদ্ধে সামনে থেকে রাশিয়াকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। সিরিয়ার যুদ্ধেও তিনি অংশ নিয়েছিলেন।

About

Popular Links