Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ধরা পড়লো বিশ্বের ‘সবচেয়ে বড়’ মিঠা পানির মাছ

ভবিষ্যৎ গতিবিধির ওপর নজর রাখাতে মাছটির শরীরে একটি 'অ্যাকোস্টিক ট্যাগ' লাগানোর পর আবারও নদীতে ছেড়ে দেওয়া হয়

আপডেট : ২১ জুন ২০২২, ১২:৩৯ পিএম

কম্বোডিয়ার মেকং নদীতে এক জেলের জালে ধরা পড়েছে ৩০০ কেজি ওজনের একটি স্টিংরে মাছ। 

গত ১৩ জুন রাতে কম্বোডিয়ার কোহ প্রিয়াহ দ্বীপের স্থানীয় এক জেলের জালে মাছটি ধরা পড়ে  বলে সোমবার (২০ জুন) এক প্রতিবেদনে জানায় সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান।

মাছটি ধরা পড়ার পর দেশটির ফিশারিজ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মাধ্যমে খবর দেওয়া হয় গবেষকদের। জানা যায়, স্টিংরেটি ৩.৯৮ মিটার লম্বা এবং ২.২ মিটার চওড়া।

গবেষকরা বলছেন, এখন পর্যন্ত নথিভুক্ত হওয়া সবচেয়ে বড় মিঠা পানির মাছ এটি। 

স্থানীয়ভাবে “বোমারি” নামে পরিচিত স্টিংরেটি ধরা পড়ার আগ পর্যন্ত ২০০৫ সালে থাইল্যান্ডে ধরা পড়া ২৯৩ কেজি ওজনের একটি ক্যাটফিশটি ছিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় মিঠা পানির মাছ।

জীববিজ্ঞানী ও যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদা রেনো বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জেব হোগান বলেন, "২০ বছর ধরে ছয়টি মহাদেশের নদী ও হ্রদের বিশালাকার মাছ নিয়ে গবেষণার অভিজ্ঞতায়, এটিই আমার সন্ধান পাওয়া সবচেয়ে বড় মিঠাপানির মাছ।"

তিনি বলেন, "মাছটি খুঁজে পাওয়া এবং নথিভুক্ত করার ব্যপারটি সত্যিই অসাধারণ। এখানে আরেকটি আশা জাগানোর মতো ইতিবাচক ব্যাপার হল, বর্তমানে হাজারও চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হওয়া মেকং নদীতেই মাছটি পাওয়া গেছে।" 

ভবিষ্যৎ গতিবিধির ওপর নজর রাখাতে মাছটির শরীরে একটি “অ্যাকোস্টিক ট্যাগ” লাগানোর পর আবারও নদীতে ছেড়ে দেওয়া হয়।

বিজ্ঞানীদের মতে, জীববৈচিত্র্যে সমৃদ্ধ মেকং নদী এখন অনেকটাই হুমকির মুখে। অতিরিক্ত মাছ ধরা, বাঁধ দেওয়া এবং দূষণের কারণে ভঙ্গুর হয়ে পড়েছে এর ইকোসিস্টেম। 

তিব্বত মালভূমি থেকে চীন, মায়ানমার, থাইল্যান্ড, লাওস, কম্বোডিয়া এবং ভিয়েতনাম হয়ে প্রবাহিত হয়েছে মেকং।

About

Popular Links