Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

দু’জনের সঙ্গে প্রেম, দুই প্রেমিকাকেই বিয়ে

ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের লোহারদাগার ভান্দ্রা ব্লকের বান্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে

আপডেট : ২১ জুন ২০২২, ০৫:৫৫ পিএম

একই সঙ্গে দুইজনের সঙ্গে প্রেম চলছিল এক যুবকের। পরে দুই প্রেমিকাকে পাশাপাশি বসিয়ে বিয়েও করলেন ওই যুবক। তবে জোর খাটিয়ে বা বিশ্বাস ভেঙে ঠকিয়ে নয়, সম্মতিক্রমেই দুই প্রেমিকাকে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়েছেন সেই যুবক।  

ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের লোহারদাগার ভান্দ্রা ব্লকের বান্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানায় দেশটির সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা।

দুই প্রেমিকাকে একসঙ্গে বিয়ে করা ওই যুবকের নাম সন্দীপ ওরাও। অন্যদিকে, তার দুই স্ত্রীর নাম কুসুম লাকড়া এবং স্বাতী কুমারী।

সন্দীপের দ্বৈত বিয়ের গল্পের শুরু আরও তিন বছর আগে। সন্দীপ এবং কুসুম তিন বছর ধরে লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন। তাদের একটি সন্তানও রয়েছে।

সন্দীপ এবং কুসুমের সম্পর্কের মধ্যেই এক সময়ে আগমন হয় স্বাতী কুমারীর। পশ্চিমবঙ্গের একটি ইটভাটায় কাজ করতে যাওয়ার সময়ে সন্দীপের দেখা হয় স্বাতী কুমারীর সঙ্গে। স্বাতী কুমারীও ওই ইটভাটাতেই কাজ করতেন। আলাপ-পরিচয় থেকে পরবর্তীতে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

সন্দীপ ও স্বাতীর প্রেমের কথা তাদের পরিবারের সদস্য ও গ্রামবাসীরা জানতে পেরে প্রবল বিরোধিতা শুরু করেন। দীর্ঘ ঝগড়া, বিবাদ ও অশান্তির পর গ্রামবাসীরা পঞ্চায়েত ডাকে।

পঞ্চায়েতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, সন্দীপকে দুই প্রেমিকাকেই বিয়ে করতে হবে। তবে আশ্চর্যের বিষয় হল, সন্দীপের দুই প্রেমিকা বা তাদের পরিবার-কেউই এ বিষয়ে কোনো আপত্তি করেনি। এরপর দুই প্রেমিকাকে বিয়ে করে নেন সন্দীপ।

সন্দীপ বলেন,‘‘আমি জানি, এই বিয়ে নিয়ে আমাকে আইনি জটিলতায় পড়তে হবে। তবে আমি এদের দু’জনকেই ভালবাসি, এদের কাউকে ছাড়া থাকাই আমার পক্ষে সম্ভব নয়।’’

About

Popular Links