Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

অস্ট্রেলিয়া-কাজাখস্তান প্রেম, ফিচারিং গুগল ট্রান্সলেটর

শুধু গুগল ট্রান্সলেটর ব্যবহার করেই চার বছর ধরে মনের কথা বলেছেন এ প্রেমিক জুটি

আপডেট : ০৯ আগস্ট ২০২২, ০৮:৩৬ পিএম

তাদের প্রেমে প্রতিবন্ধকতা হিসেবে পাঁচ হাজার মাইলেরও বেশি। এই ভৌগোলিক দূরত্বের পাশাপাশি ছিল ভাষাগত বাধাও। ইন্টারনেটের এ যুগে না হয় ভৌগোলিক দূরত্বের ব্যবধান ঘুচিয়ে দেওয়া গেল, কিন্তু পরস্পরের ভাষাই না বুঝলে মনের কথা চালাচালি হবেই বা কী করে?

কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার ম্যাথু হারবিজ ও কাজাখস্তানের ম্যাডিনার কাছে কোনোকিছুই পাত্তাও পায়নি। গুগল ট্রান্সলেটর ব্যবহার ভাষাগত জটিলতার দেওয়াল গুঁড়িয়ে দিয়েছেন তারা। শুধু তাই না, সম্প্রতি তারা বিবাহবন্ধনেও আবদ্ধ হয়েছেন।

ম্যাথু হারবিজ ও ম্যাডিনার প্রেমের শুরুটা চার বছর আগে। ২০১৮ সালে বন্ধুদের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ায় ঘুরতে গিয়েছিলেন ম্যাডিনা। সেখানে গিয়েই হারবিজের সঙ্গে পরিচয়। যদিও প্রথম দেখায় প্রেম হয়নি তাদের। তবে বন্ধুত্ব ঠিকই হয়ে গিয়েছিল। অস্ট্রেলিয়া থেকে ম্যাডিনা দেশে ফিরে এলেও দুজনের মধ্যে চ্যাটিং চলতে থাকে। 

ম্যাডিনা জানতেন না ইংরেজি, হারবিজও কাজাখ বুঝতেন না। তবে তাতে দুজনের মনের দেওয়া-নেওয়া আটকে থাকেনি। গুগল ট্রান্সলেটর ব্যবহার করে বার্তা আদান-প্রদান করতে করতে ঠিকই একসময় তাদের বন্ধুত্ব গড়ায় প্রেমে। নিয়মিত কথা বলার পাশাপাশি মাস চারেক পর পর এক অপরের সঙ্গে দেখাও করতেন হারবিজ ও ম্যাডিনা।

তবে ২০২০ সালে বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস মহামারির উপদ্রব শুরু হলে তাদের দেখা করা বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়। গত বছরের মে মাসে ম্যাডিনা অস্ট্রেলিয়ার ভিসা পান। অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছে দুই সপ্তাহ হোটেলে ছিলেন তিনি। প্রতিদিনই হারবিজ দাঁড়িয়ে থাকতেন ম্যাডিনার হোটেলের বাইরে। এরপরেই তারা বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন।

অবশেষে গত জুনে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন ম্যাথু হারবিজ ও ম্যাডিনা। বিয়ের পর পাকাপাকিভাবে অস্ট্রেলিয়াতেই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ম্যাডিনা। তবে বিয়ের পর দুজনের কেউই আর গুগল ট্রান্সলেটরের ভরসায় থাকতে ইচ্ছুক না। তাই তারা একটু একটু করে একে অপরের ভাষা রপ্ত করতে শুরু করেছেন।

About

Popular Links