Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ইতালিতে মিললো ব্রোঞ্জের প্রাচীন মূর্তি

মূর্তিগুলোর আশপাশে পাওয়া গেছে প্রায় ৬ হাজার স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জমুদ্রা। এগুলো যিশুখ্রিষ্টের জন্মের আগের দু শ বছর এবং তার মৃত্যু-পরবর্তী এক শ বছরের মধ্যে তৈরি করা হয়েছিল

আপডেট : ১০ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৩৮ পিএম

ইতালির তাসকানির সান ক্যাসিয়ানো দেই বাগনিতে অনুসন্ধান চালানোর পর প্রাচীনকালের ২৪টি সুসংরক্ষিত ব্রোঞ্জ মূর্তি পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, মূর্তিগুলো ২,৩০০ বছরের পুরোনো প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন। মূর্তিগুলো রোমানিয়ান সাম্রাজ্যের ইট্রুস্কান সভ্যতার বলে জানান অনুসন্ধানকারী ইতালীয় প্রত্নতাত্ত্বিক দল।

ব্রোঞ্জ, সিলভার ও কয়েন দ্বারা আবৃত মূর্তিগুলো রোমানিয়া সাম্রাজ্যের প্রথম ও দ্বিতীয় শতাব্দীর। এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস।

উদ্ধার হওয়া ব্রোঞ্জের মূর্তিগুলোকে ১৯৭২ সালে ক্যালাব্রিয়ায় আবিষ্কৃত বিখ্যাত ব্রোঞ্জ রিয়াস ওয়ারিয়র্স মূর্তিগুলোর সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে। 

অনুসন্ধান দায়িত্বে থাকা প্রত্নতাত্ত্বিক জ্যাকোপো তাবোলি বলেন, “অনুসন্ধানের ফলে হওয়া আবিষ্কারটি নতুন ইতিহাস করবে। প্রাচীন ইতালিতে আবিষ্কৃত ইট্রুস্কান এবং রোমান যুগের সবচেয়ে বেশি পরিমাণে ব্রোঞ্জের মূর্তি রয়েছে তুসকানে। পুরো ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে এটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ।”

তিনি আরও বলেন, “অনুসন্ধানের পর পুরোনো মূর্তি পাওয়ার ঘটনা নজিরবিহীন। কারণ এ পর্যন্ত হওয়া অনুসন্ধানগুলোয় মূলত পোড়ামাটির মূর্তিই পাওয়া গিয়েছে। যে ব্রোঞ্জ দিয়ে মূর্তিগুলো আবৃত, সেগুলোর মধ্যে অ্যাপোলো, হাইজিয়া এবং বিভিন্ন সম্রাটের মতো রোমান দেব-দেবীর প্রতিলিপি রয়েছে।”

মূর্তিগুলোর আশপাশে পাওয়া গেছে প্রায় ৬ হাজার স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জমুদ্রা। এগুলো যিশুখ্রিষ্টের জন্মের আগের দু শ বছর এবং তার মৃত্যু-পরবর্তী এক শ বছরের মধ্যে তৈরি করা হয়েছিল। এই সময়টিতে প্রাচীন টাসকেনির সবচেয়ে বড় পরিবর্তন সংঘটিত হয়। তখনই শেষ হয় ইট্রুস্কানদের রাজত্ব এবং শুরু হয় রোমানদের শাসন।

খননকাজের প্রধান জাকোপো টাবল্লি জানান, মূর্তিগুলোকে পানিতে অর্পণ করেছিলেন সে সময়কার মানুষরা। তারা বিশ্বাস করতেন, পানিতে কিছু দান করলে পানিও তাদের কিছু দান করবে। ফলে হাজার বছর ধরে পানিতেই সংরক্ষিত ছিল ব্রোঞ্জের তৈরি এই মূর্তিগুলো।

খননকাজ শেষ হওয়ার পর শিল্পকর্মগুলোকে পাঠানো হবে গ্রোসেটোর এক রেস্টোরেশন ল্যাবে। সেখান থেকে সেগুলোকে পাঠানো হবে সান কেসিয়ানো জাদুঘরে। সেখানে এগুলো প্রদর্শনীর জন্য রাখা হবে।

About

Popular Links