Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সিরিয়া-তুরস্কে লাশের সংখ্যা বেড়েই চলেছে

দুই দেশে এখন পর্যন্ত ৭ হাজার ৮২৬ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে

আপডেট : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯:৩০ এএম

তুরস্ক-সিরিয়া সীমান্তবর্তী অঞ্চলে ৭.৮ মাত্রার ভূমিকম্পে দুই দেশেই প্রাণহানি বাড়ছে। বাংলাদেশ সময় বুধবার (৮ ফেব্রয়ারি) সকাল পর্যন্ত দুই দেশে নিহতের সংখ্যা অন্তত ৭ হাজার ৮২৬ বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এখন পর্যন্ত তুরস্কে ৫,৮৯৪ জন ও সিরিয়ায় ১,৯৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তুরস্কের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার প্রধান ইউনুস সেজের বলেছেন, ভূমিকম্পে তুরস্কে মোট ৩০ হাজার ৪৭৪ জন আহত হয়েছেন। পরে হতাহতের হালনাগাদ সংখ্যা আবারও জানানো হবে।

সিরিয়ায় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দেশটিতে আহতের সংখ্যা ৩ হাজার ৫৩১।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার তথ্যমতে, স্থানীয় সময় সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) ৪টা ১৭ মিনিটে সিরিয়া সংলগ্ন তুরস্কের গাজিয়ানতেপ শহরের কাছেই কম্পন ঘটে। এর গভীরতা ছিল ১৭.৯ কিলোমিটার। তবে সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, ২৪.১ কিলোমিটার।

প্রতিবেশি তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলে আঘাত হানা এই ভূমিকম্পে সিরিয়ার বহুভবন ধসে পড়ে। সিরিয়ায় নিহতদের বেশিরভাগই বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, ভূমিকম্পে উভয় দেশে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সংখ্যা ২৩ মিলিয়ন ছাড়িয়ে যেতে পারে। এছাড়া সংস্থাটির পূর্বাভাসে সতর্ক করে বলা হয়েছে, নিহতের সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে। ভূমিকম্পে উদ্ধার কাজে সহযোগিতার জন্য তুরস্ক ও সিরিয়ার পাশে দাঁড়িয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা।

এদিকে, প্রথম কম্পনের ২৮ ঘণ্টার মধ্যে তুরস্কের মধ্যাঞ্চলে মঙ্গলবার আরেকটি নতুন ভূমিকম্প হয়েছে। ইউএসজিএস বলছে, এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৫। গোলবাসি শহরের কাছে এই কম্পনের গভীরতা ছিল ১০ কিলোমিটার।

About

Popular Links