Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তুষারধসে পাকিস্তানে ১১ জনের মৃত্যু

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৩ জন

আপডেট : ২৮ মে ২০২৩, ০২:১৫ পিএম

পাকিস্তানের গিলগিট বালতিস্তানের আস্তোর জেলায় তুষারধসের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ১১ জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও ১৩ জন।

গিলগিট বালতিস্তানের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ (জিবিডিএমএ) বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

পাকিস্তানের কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শুক্রবার (২৬ মে) বিকেল চারটার দিকে শাউন্টার টপ পাসে তুষারধস হয়। ঘটনার সময় গুজজার নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠীর একটি দল তাদের গবাদিপশু নিয়ে কাশ্মীর থেকে আস্তোরের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় তারা তুষারধসের কবলে পড়েন। এতে ১১ জন প্রাণ হারান ও বাকিরা আহত হন। দুর্গত এলাকাটি দুর্গম হওয়ায় সেখানে পৌঁছাতে উদ্ধারকারী দলকে হিমশিম খেতে হয়।

জিবিডিএমএ বলছে, তারা এখন পর্যন্ত আটজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে।বাকি মৃতদেহগুলো উদ্ধারের জন্য জরুরি সেবা বিভাগ রেসকিউ ১১২২, জেলা প্রশাসন এবং স্থানীয় লোকজন সম্মিলিতভাবে অভিযান পরিচালনা করছে।

জিবিডিএমএ জানিয়েছে, ১৩ জনকে আহত অবস্থায় আস্তোরে ডিস্ট্রিক্ট হেডকোয়ার্টার্স (ডিএইচকিউ) হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তাদের মধ্যে ১২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ এ প্রাণহানির ঘটনায় শোক জানিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে তিনি হতাহত ব্যক্তিদের জন্য প্রার্থনা করেছেন এবং শোকাহত মানুষের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। 

শেহবাজ শরিফ বলেন, “জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পাকিস্তানে এ ধরনের ঘটনা বাড়ছে।”

জলবায়ু পরিবর্তনজনিত প্রভাব থেকে পাকিস্তানের মতো উন্নয়নশীল দেশকে বাঁচাতে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

গিলগিট বালতিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী খালিদ খুরশিদ খানও প্রাণহানির এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন।

About

Popular Links