Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

দেবদেবীর ছবিওয়ালা কাগজে মাংস বিক্রি, ভারতে মুসলিম রেস্টুরেন্ট মালিক গ্রেপ্তার

এর আগে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়ানো ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে উত্তরপ্রদেশের উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন হিন্দু জাগরণ মঞ্চ তালেবের দোকানের সামনে বিক্ষোভ শুরু করে

আপডেট : ০৫ জুলাই ২০২২, ০৯:১৩ পিএম

ভারতের উত্তরপ্রদেশে হিন্দু দেবদেবীর ছবি সম্বলিত খবরের কাগজে করে মাংস বিক্রির অভিযোগে মহম্মদ তালেব নামে এক মুসলিম রেস্টুরেন্ট মালিককে গ্রেপ্তার করেছে সেদেশের পুলিশ।

এর আগে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়ানো ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে উত্তরপ্রদেশের উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন হিন্দু জাগরণ মঞ্চ তালেবের দোকানের সামনে বিক্ষোভ শুরু করে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে তাকে গ্রেপ্তার করে।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বাংলার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, উত্তরপ্রদেশের সম্ভল শহরের প্রধান বাজার এলাকায় মহম্মদ তালেবের “মেহেক” নামে একটি রেস্টুরেন্ট অনেক বছর ধরেই আছে। সেখানে খাসির মাংসের কাবাব, চিকেন তন্দুরিসহ নানা ধরনের খাবার বিক্রি করা হতো। 

গত ১ জুলাই থেকে ভারতে পলিথিনের ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়। ফলে দোকানিরা কাগজের ব্যাগ, খবরের কাগজের ঠোঙা ব্যবহার শুরু করেন। তালেবও পুরনো খবরের কাগজ ব্যবহার করেন। সেইসব কাগজগুলোতে হিন্দু দেবদেবীদের ছবি ছিল। সেই কাগজে তিনি মাংসের তৈরি নানা ধরনের খাবার বিক্রি করেন।

তালেবের দোকানে কাগজে মুড়ে মাংসের খাবার বিক্রির বিষয়টি খেয়াল করে স্থানীয় হিন্দু জাগরণ মঞ্চ। রবিবার সংগঠনটির নেতাকর্মীরা রেস্টুরেন্টটির সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় সংগঠনটির জেলা সভাপতি কৈলাস গুপ্তার সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন মহম্মদ তালেব। এর পরেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে শুরু করে।

উত্তরপ্রদেশের সম্ভলের পুলিশ সুপার চক্রেশ মিশ্রা মঙ্গলবার টুইটারে এক বিবৃতিতে জানান, তালেব নামে এক ব্যক্তি তার রেস্টুরেন্টে হিন্দু দেবদেবীদের ছবি সম্বলিত কাগজে মুড়ে মাংস বিক্রি করছেন, এই খবর পেয়েই পুলিশ সেখানে ছুটে যায়। সেখানে তখন বিক্ষোভ চলছিল।

তিনি আরও বলেন, “পুলিশ সদস্যরা যখন দোকানের মালিক ও কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে যান, তখন ছুরি-চাকু দিয়ে হামলা চালানোর চেষ্টা করা হয়। পরে পুলিশ তালেবকে গ্রেপ্তার করে। আদালতের অনুমতি নিয়ে তাকে পুলিশি রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আছে।”

অভিযোগের বিষয়ে তালেবের রেস্টুরেন্টটির একজন কর্মী ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেছেন, “তালেব পুরোনো জিনিসপত্রের দোকান থেকে খবরের কাগজগুলো ঠোঙা বানানোর জন্য কিনেছিলেন। তারা কেউ খেয়াল করেননি যে এতে দেবদেবীর ছবি আছে।”

এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ভারতের বিরোধী দল কংগ্রেস। সংগঠনের জাতীয় মুখপাত্র শামা মোহামেদ বিবিসি বাংলাকে বলেন, পুরো ঘটনাটিই আসলে অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। পুলিশের বোঝা উচিত ছিল কেউ এটা ইচ্ছে করে করবে না। এই দেশে কি কেউ ইচ্ছে করে দেবদেবীদের ছবিতে করে মাংস বিক্রি করবে?”

তিনি আরও বলেন, “পুলিশ তালেবকে গ্রেপ্তার করেছে। অথচ জম্মু ও কাশ্মীরে জঙ্গিরা কীভাবে বিজেপির সদস্য হয়ে যেতে পারে তার কোনো তদন্ত হয় না।”

এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তারা বলছেন, “মহম্মদ তালেব যদি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে গ্রেপ্তার হন; তাহলে বিজেপির সাবেক মুখপাত্র নূপুর শর্মা এখনো জেলের বাইরে কেন?”

About

Popular Links