Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

কথা রাখেননি মোদি, ফের দিল্লি ঘেরাওয়ে কৃষকরা

তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবি সরকার মেনে নেওয়ায় বিক্ষোভ প্রত্যাহারের ৮ মাসেরও বেশি সময় পর ফের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে ৫ হাজারের বেশি কৃষক দিল্লির কেন্দ্রস্থলে জড়ো হন

আপডেট : ২৩ আগস্ট ২০২২, ০৫:৩৬ পিএম

সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েও তা ভঙ্গ করেছে এমন অভিযোগ তুলে আবারও ভারতের রাজধানী দিল্লিতে জড়ো হয়েছেন কয়েক হাজার কৃষক। তাদের আটকাতে ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছিল কিন্তু তারা তা ভেঙে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে দিতে দিল্লিতে প্রবেশ করেন।

সোমবার (২২ আগস্ট) বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানায়, তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবি সরকার মেনে নেওয়ায় বছরব্যাপী চলা টানা বিক্ষোভ প্রত্যাহারের ৮ মাসেরও বেশি সময় পর ফের মোদি ও তার সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে ৫ হাজারের বেশি কৃষক দিল্লির কেন্দ্রস্থলে জড়ো হন।

সংযুক্ত কৃষক মোর্চা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সরকার সব কৃষিপণ্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য এবং কৃষকদের সব ঋণ মওকুফের যে নিশ্চয়তা দিয়েছিল, অন্য অনেক দাবির সঙ্গে দিল্লিতে জড়ো হওয়া কৃষকরা এগুলো বাস্তবায়নের দাবি তুলেছে।

এ প্রসঙ্গে মন্তব্য চাওয়া হলেও ভারতের কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র সাড়া দেননি রয়টার্সকে।

বিক্ষোভকারীরা ভারতের পতাকা ও ব্যানার নিয়ে বিক্ষোভস্থলের দিকে অগ্রসর হওয়ার পথে ব্যারিকেডসহ সব বাধা টপকে যান এবং প্রধানমন্ত্রী মোদির বিরুদ্ধে একের পর এক স্লোগান দেন।

গত বছরের নভেম্বরে পণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণমুক্ত করার লক্ষ্যে গৃহীত তিনটি কৃষি আইন থেকে পিছু হটার ঘোষণা দেয় মোদি সরকার। কৃষকরা সেসময় বলেছিলেন, ওই তিনটি আইন বাস্তবায়িত হলে তারা বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর মাধ্যমে ব্যাপকভাবে শোষিত হবে।

কৃষি আইনগুলো প্রত্যাহারের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকার সব কৃষিপণ্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নিশ্চিতের উপায় বের করতে পণ্য উৎপাদক ও সরকারি কর্মচারিদের নিয়ে একটি প্যানেল গঠনেও রাজি হয়েছিল।

গত মাসে ভারতের সরকার ওই প্যানেলটি গঠন করেছে এবং কৃষক সংগঠনের প্রতিনিধিদের ওই প্যানেলে যোগ দিতে আহ্বান জানিয়েছে।

কৃষকদের বিক্ষোভের সময় ভারতের রাজধানীর সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদারের পাশাপাশি বিক্ষোভস্থল ও এর আশপাশে পুলিশের উপস্থিতি বাড়ানো হয়।

About

Popular Links