Sunday, June 16, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তালেবানের গুলিতে পাকিস্তানি সেনা নিহত

পাকিস্তানের তালেবান গোষ্ঠীর সঙ্গে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে

আপডেট : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৫২ পিএম

পাকিস্তানে তালেবানের গুলিতে দেশটির পাঁচ সেনা নিহত হয়েছে। এতে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীটির অন্তত চার যোদ্ধা মারা গেছে। এ ঘটনার পরে সেনাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধবিরতি ভঙ্গের অভিযোগ তুলেছে তালেবান।

কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আফগান তালেবানের মধ্যস্ততায় সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি) গত জুনে অনির্দিষ্টকালের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে। তবে এর পরেও দুইও পক্ষ বারবার সংঘর্ষে জড়িয়েছে।

সোমবারের সংঘর্ষের ব্যাখ্যা দিয়ে পাকিস্তান সেনাবাহিনী জানায়, তারা গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী উত্তর ওয়াজিরিস্তানের বোয়ায় একটি গোপন আস্তানায় অভিযান চালালে সেনা ও সন্ত্রাসীদের মধ্যে তীব্র গুলি বিনিময় হয়।

এতে চারজন যোদ্ধা নিহত হয়েছে ও একজন অফিসারসহ পাঁচজন পাকিস্তানি সৈন্য নিহত হয়।

মঙ্গলবার টিটিপির একজন কমান্ডার সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সরকার বিশ্বাস ভঙ্গ করেছে। সৈন্যরা সম্প্রতি খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের রাজধানী পেশোয়ারসহ ছয়টি জেলায় তাদের আক্রমণ করেছে। 

কমান্ডার বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, সরকার যুদ্ধবিরতির বিষয়ে তার প্রতিশ্রুতিকে সম্মান করছে না।

উত্তর ওয়াজিরিস্তান ও উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানের উপজাতীয় অঞ্চলে পাকিস্তানি তালেবান ও অন্যান্য সশস্ত্র গোষ্ঠীর ঘাঁটি রয়েছে। 

এসব এলাকায় নিয়মিত বিরতিতে হামলার ঘটনা ঘটে থাকে। পাকিস্তানি তালেবানরা এই অঞ্চলে পুনরায় সংগঠিত হচ্ছে।

গত বছর আফগানিস্তানে তালেবানরা ক্ষমতায় ফিরে আসার পর থেকে ইসলামাবাদ নিয়মিতভাবে টিটিপির আক্রমণের অভিযোগ করে আসছে।

পাকিস্তান ও আফগানিস্তান তালেবান পৃথক গোষ্ঠী হলেও তাদের একটি অভিন্ন মতাদর্শ রয়েছে।

আফগানিস্তান জোর দিয়ে বলে যে তারা তার মাটি বিদেশী যোদ্ধাদের দ্বারা ব্যবহার করার অনুমতি দেবে না। তবে শত শত পাকিস্তানি তালেবান যোদ্ধা দেশটিতে রয়েছে বলে ধারণা করা হয়।

এপ্রিলে, তালেবানরা আফগানিস্তানের কুনার ও খোস্ত প্রদেশে বিমান হামলার জন্য পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করে। 

তবে ইসলামাবাদ এই হামলার পিছনে ছিল তা নিশ্চিত করেনি।

About

Popular Links