Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভারতে অবিবাহিত নারীরাও পেলো গর্ভপাতের অধিকার

ভারতের সর্বোচ্চ আদালত বলেছে, নারীর বৈবাহিক অবস্থা বিবেচনা করে তার গর্ভপাতের অধিকার কেড়ে নেওয়া যাবে না। অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে অন্তঃস্বত্ত্বা হয়ে পড়া অবিবাহিত নারীরা ২৪ সপ্তাহের মধ্যে গর্ভপাতের অধিকার পাবেন

আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:০৮ পিএম

নিরাপদ ও আইনি প্রক্রিয়ায় গর্ভপাত সকল নারীর অধিকার হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। এক্ষেত্রে বিবাহিত ও অবিবাহিত নারীর মধ্যে কোনো পার্থক্য করাকে অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

ভারতের সর্বোচ্চ আদালত বলেছে, নারীর বৈবাহিক অবস্থা বিবেচনা করে তার গর্ভপাতের অধিকার কেড়ে নেওয়া যাবে না। অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে অন্তঃস্বত্ত্বা হয়ে পড়া অবিবাহিত নারীরা ২৪ সপ্তাহের মধ্যে গর্ভপাতের অধিকার পাবেন। এই অধিকার কেড়ে নেওয়া হবে মৌলিক অধিকারের লঙ্ঘন।

আদালতের রায়ে বলা হয়, গর্ভপাত আইনের আওতায় বিবাহিত ও অবিবাহিত নারীর মধ্যে পার্থক্য করা “কৃত্রিম ও সাংবিধানিকভাবে টেকসই নয়” এবং এর মধ্য দিয়ে শুধু বিবাহিত নারীরাই যৌনচারে সক্রিয় বলে গৎবাঁধা ধারণাকে জিইয়ে রাখা হয়।

ভারতের মেডিকেল টার্মিনেশন অফ প্রেগন্যান্সি আইন (১৯৭১) অনুযায়ী, আগে বিবাহিত নারী, বিবাহবিচ্ছেদ, বিধবা, অপ্রাপ্তবয়স্ক, “অক্ষম এবং মানসিকভাবে অসুস্থ নারী” এবং যৌন নিপীড়ন বা ধর্ষণ থেকে বেঁচে যাওয়াদের ক্ষেত্রে গর্ভপাতের বিষয়টি স্বীকৃত ছিল।

২৫ বছর বয়সী এক অবিবাহিত নারীর রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে ঐতিহাসিক এই রায় আসে। অবিবাহিত ও সম্মতির ভিত্তিতে সম্পর্কের কথা তুলে ধরে আইন অনুযায়ী তার গর্ভপাতের অধিকার নেই বলে দিল্লি হাইকোর্ট ২৩ মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা ওই তরুণীর আবেদন খারিজ করে দেয়।

পরে তিনি সুপ্রিম কোর্টে আপিল করেন। আদালতকে ওই তরুণী বলেন, তার সঙ্গী তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেছে। কৃষক বাবার পাঁচ সন্তানের মধ্যে তিনি সবার বড় এবং কোনোভাবেই তার পক্ষে সন্তান লালন-পালন করা সম্ভব নয়।

গত ২১ জুলাই সুপ্রিম কোর্ট ওই নারীর গর্ভপাত করা নিরাপদ কি-না, তা পরীক্ষা করার জন্য একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করতে নির্দেশ দেন। সেদিন আদালত বলেন, ২০২১ সালে সংশোধিত গর্ভপাত আইনে “স্বামী” শব্দকে “সঙ্গী” দিয়ে প্রতিস্থাপিত করা হয়েছে। এটা দিয়ে বুঝা যায়, ভারতের লোকসভা গর্ভপাতকে শুধু বৈবাহিক সম্পর্কের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে চায় না।

About

Popular Links