Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নেপালে টালমাটাল জোট সরকার

মাত্র দুই মাস পুরনো জোট সরকারের জন্য এটি বড় আঘাত হতে পারে

আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯:৪১ পিএম

নেপালের উপপ্রধানমন্ত্রী রাজেন্দ্র লিংডেনসহ আরও তিন মন্ত্রী পদত্যাগ করায় বিপাকে পড়েছে ক্ষমতাসীন জোট।

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) তারা পদত্যাগপত্র জমা দেন।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, নেপালের সাবেক প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলির নেতৃত্বাধীন সিপিএন-ইউএমএল পার্টি সোমবার প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দহল প্রচণ্ডের নেতৃত্বাধীন সরকারের ওপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মাত্র দুই মাস পুরনো জোট সরকারের জন্য এটি বড় আঘাত হতে পারে।

দ্য কাঠমান্ডু পোস্ট পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, সোমবার দলের শীর্ষনেতাদের বৈঠকের পর এই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে সিপিএন-ইউএমএল।

দলটির ভাইস-চেয়ারম্যান বিষ্ণু পাউডেল বলেন, নেপালের প্রধানমন্ত্রী ভিন্ন পথে কাজ শুরু এবং প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক ভারসাম্য বিনষ্ট করার পর আমরা সরকার থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

জোট সরকারের প্রধান দুটি দলের এই রাজনৈতিক বিরোধের মূলে রয়েছে রয়েছে প্রেসিডেন্ট পদে রাম চন্দ্র পাউডেলকে সমর্থন দেওয়া। নেপালি কংগ্রেসের এই সিনিয়র নেতার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন প্রচণ্ড। পাউডেল ক্ষমতাসীন জোটে নেই, তিনি বিরোধী দলে রয়েছে। সিপিএন-ইউএমএল নেতা ওলি প্রেসিডেন্ট পদে দলের সদস্য সুভাস নেমবাংকে মনোনয়ন দিয়েছেন।

আগামী ৯ মার্চ নেপালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। ২০২২ সালের নভেম্বরে দেশটিতে সংসদ নির্বাচন হয়েছে। কিন্তু এতে কোনো দলই সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। এর ফলে পুষ্প কমল দহলের নেতৃত্বে জোট সরকার গঠিত হয়।

About

Popular Links