Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

গবেষণার জন্য বিপন্ন প্রজাতির এক লাখ বানর কিনছে চীন

শ্রীলঙ্কার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করলেও অস্বীকার করেছে চীন

আপডেট : ২৪ এপ্রিল ২০২৩, ১১:৫০ পিএম

গবেষণার জন্য শ্রীলঙ্কার কাছ থেকে বিপন্ন প্রজাতির এক লাখ বানর কিনছে চীনের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।

শ্রীলঙ্কার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করলেও অস্বীকার করেছে চীন।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

শ্রীলঙ্কার কৃষি মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তা গুণদাসা সমরসিংহে বলেন, চীনের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান আমাদের কাছ থেকে ১ লাখ বানর কিনতে চাইছে। মূলত ওই প্রজাতির বানর ফসল নষ্ট করে। তবে সব বানর একত্রে পাঠানো হবে না।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার (পিটিআই) এক প্রতিবেদনেও।

শ্রীলঙ্কার কৃষিমন্ত্রী মাহিন্দা অমরাবিরাও বলেন, নিজেদের চিড়িয়াখানায় রাখার জন্য চীনা প্রতিষ্ঠানটি বানরগুলো কিনছে। ১ লাখ বানর ১ হাজারের বেশি চিড়িয়াখানায় রাখা হবে।

বানরের ওই প্রজাতির নাম টক ম্যাকাক। শ্রীলঙ্কায় প্রায় ৩০ লাখ এই প্রজাতির বানর রয়েছে। এটি ফসলের ক্ষতি করে ও মানুষের ওপরও হামলা চালায়।

শ্রীলঙ্কায় এই প্রাণীটিকে বিপন্ন প্রজাতি হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এমনকি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচারে (আইইউসিএন) সংকটাপন্ন প্রাণী হিসেবে লাল তালিকাভুক্ত টক ম্যাকাক বানর।

যদিও মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে বানর কেনার বিষয়টি নিজেরা জানে না বলে জানিয়েছে কলম্বোয় অবস্থিত চীনা দূতাবাস।

বিবৃতিতে বলা হয়, চীনে প্রাণী ও উদ্ভিদ আমদানি-রপ্তানি করে ন্যাশনাল ফরেস্ট্রি অ্যান্ড গ্রাসল্যান্ড অ্যাডমিনিস্ট্রেশন। তাদের হাতে শ্রীলঙ্কা থেকে চীনা কোনো কোম্পানির বানর কেনার বিষয়ে তথ্য নেই।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, বিশ্বের যেসব দেশ বন্যপ্রাণীর অধিকার সংরক্ষণ আইন কঠোরভাবে মেনে চলে, চীন তাদের অন্যতম। তাই বন্যপ্রাণী সংরক্ষণকে বিশেষ গুরুত্ব দেয় চীন সরকার এবং এক্ষেত্রে যাবতীয় আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলে।

About

Popular Links