Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘আগামীতে তথ্যের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য উৎস হবে টুইটার’

সম্প্রতি ধনকুবের ইলন মাস্কের হাত থেকে টুইটারের দায়িত্ব নেন লিন্ডা ইয়াকারিনো

আপডেট : ১৩ জুন ২০২৩, ০৮:৩৬ পিএম

টুইটার ভবিষ্যতে বিশ্বের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র হয়ে ওঠার লক্ষ্যে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানের নতুন প্রধান নির্বাহী (সিইও) লিন্ডা ইয়াকারিনো। এছাড়া তিনি “টুইটার ২.০” এর রূপরেখা তৈরি করেছেন বলেও জানান।

সোমবার (১২ জুন) একাধিক টুইট বার্তায় এসব কথা জানান তিনি।

সম্প্রতি ধনকুবের ইলন মাস্কের হাত থেকে টুইটারের দায়িত্ব নেন লিন্ডা ইয়াকারিনো। এরপরেই নিজস্ব পরিকল্পনার রূপরেখা প্রকাশ করেন প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ এই কর্মকর্তা।

লিন্ডা ইয়াকারিনো বলেন, “টুইটার সবচেয়ে আগে ও সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য তথ্য প্রকাশ করবে। এটি শুধু প্রতিশ্রুতি নয়। আমরা এটাই বাস্তবায়ন করবো।”

টুইটার সিইও বলেন, “এই প্ল্যাটফর্মে কিছু পরিবর্তন প্রয়োজন। তথ্যের আদানপ্রদানের মধ্য দিয়ে সভ্যতাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমরা খোলামেলা আলোচনা করছি।”

২০২২ সালে টুইটার কেনার পর থেকে ভুল তথ্য মোকাবেলায় নেয়া মাস্কের একাধিক পদক্ষেপ সমালোচনার সম্মুখীন হয়।

মে মাসে সংস্থাটির ট্রাস্ট অ্যান্ড সেফটি বিষয়ক প্রধান চাকরি ছাড়েন। এতে টুইটারের ছাড়তে হয় ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের ডিসইনফরমেশন কোড।

লিন্ডা ইয়াকারিনো/ সংগৃহীত

৪০০ কোটি ডলারে ইলন মাস্কের টুইটার অধিগ্রহণের পর কর্মী ছাঁটাইসহ নানা কাণ্ডে প্রতিষ্ঠানটিতে চলছিল অস্থিরতা। এমনকি এ কারণে বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা টেসলা ও রকেট ফার্ম স্পেসএক্সসহ অন্যান্য উদ্যোগে কম সময় দিচ্ছেন; এমন অভিযোগ তুলে তার ওপর নাখোশ ছিল অংশীদাররা। তখন থেকেই তিনি টুইটারের দায়িত্ব নিতে নির্ভরশীল কাউকে খুঁজছিলেন।

এর আগে মিডিয়া জায়ান্ট এনবিসিইউনিভার্সলকে নেতৃত্ব দেয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে লিন্ডা ইয়াকারিনোর। মাস্ক ঘোষিত সময়ের আগেই তিনি টুইটারে দায়িত্ব পালন শুরু করেছেন।

এর আগে নানা কারণে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়া মিডিয়া জগতে বড় মিডিয়া হিসাবে পরিচিত “এনবিসি ইউনিভার্সাল”-এর বিজ্ঞাপন প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে ব্যপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন ইয়াকারিনো।

আগের চাকরিতে কোম্পানির বিজ্ঞাপনী ব্যবসা নতুন করে ঢেলে সাজানোর পাশাপাশি ২০২০ সালে বিজ্ঞাপন সমর্থিত স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম “পিকক” উন্মোচনের পেছনেও তার বড় ভূমিকা ছিল।

এখন আর্থিক আয় নিয়ে সংগ্রাম করা সামাজিক প্ল্যাটফর্ম টুইটারের ব্যবসায়িক কার্যক্রমের হাল ধরেছেন তিনি। আর প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী চেয়ারম্যান ও প্রযুক্তি প্রধান হিসেবে নিজের কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন মাস্ক।

ইয়াকারিনো বলেছেন, “টুইটারের সবচেয়ে জরুরি সমস্যাগুলো সবার আগে সমাধান করা হবে। এটি যাতে বিশ্ব পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে সেটির দিকেও নজর দেওয়া হবে।”

তিনি বলেন, “শক্তিশালী দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে কাজ শুরু করলে, সত্যিই পরিবর্তন সম্ভব। সেজন্য নিজের আত্মবিশ্বাস রাখতে হবে ও পরিশ্রম করে যেতে হবে।”

ভবিষ্যতে টুইটারকে শক্তিশালী করতে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন ইয়াকারিনো।

About

Popular Links