Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

টানা ১২৭ ঘণ্টা নেচে ১৬ বছরের কিশোরীর বিশ্ব রেকর্ড

শ্রুষ্টি গত ২৯ মে সকালে তার নৃত্য শুরু করে, যা চলে ৩ জুন বিকেল পর্যন্ত

আপডেট : ১৬ জুন ২০২৩, ০৯:৪৩ পিএম

ভারতে টানা ১২৭ ঘণ্টা নৃত্য করে বিশ্ব রেকর্ড করেছে শ্রুষ্টি সুধীর জাগতপ নামে ১৬ বছর বয়সী এক কিশোরী। গত সপ্তাহে টানা পাঁচদিন পরিশ্রম করে সে এই কীর্তি গড়ে।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের তথ্য অনুযায়ী, এটি এককভাবে সবচেয়ে বেশি সময় নৃত্য করার ঘটনা। এই কিশোরী ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের বাসিন্দা।

এর আগে, এই কীর্তির অধিকারী ছিলেন নেপালি নৃত্যশিল্পী বন্দনা নেপাল। তিনি ২০১৮ সালে ১২৬ ঘণ্টা নেচেছিলেন।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের বিচারক (অ্যাডজুডিকেটর) স্বপ্নিল ডাঙ্গারিকর বলেন, শ্রুষ্টি তার কলেজ মিলনায়তনের এই ম্যারাথন নৃত্য করে। দীর্ঘ সময় ধরে নৃত্য করতে গিয়ে সে কয়েকবার খুব ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল। কিন্তু তার মা-বাবা সব সময় তার পাশেই ছিলেন। তাকে উজ্জীবিত করতে তাঁরা তার মুখে পানি ছিটিয়ে দিতেন। সামগ্রিকভাবে নৃত্যের পুরো বিষয় ছিল চিত্তাকর্ষক। অনুষ্ঠানস্থল ছিল তার সমর্থকে ঠাসা।

শ্রুষ্টি গত ২৯ মে সকালে তার নৃত্য শুরু করে, যা চলে ৩ জুন বিকেল পর্যন্ত। এই কীর্তি গড়ার পর সে টানা এক দিন ঘুমিয়েছিল।

এই কীর্তি গড়তে শ্রুষ্টি বেছে নেয় ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য “কত্থক”। এ নিয়ে শ্রুষ্টির ভাষ্য, “আমি আমার ভারতের সংস্কৃতিকে তুলে ধরতে চেয়েছি।”

এদিকে এ কীর্তি গড়তে কঠোর সব অনুশীলন করতে হয়েছে শ্রুষ্টিকে। সে ১৫ মাস ধরে যোগনিদ্রা ও দাদার শেখানো ধ্যানের মাধ্যমে মস্তিষ্ককে উজ্জীবিত, গভীর ঘুম ও ক্লান্তি রোধের কৌশল রপ্ত করেছে। প্রতিদিন পাঁচ ঘণ্টা ঘুমানোর লক্ষ্যে চার ঘণ্টা ধ্যান, ছয় ঘণ্টা নৃত্য ও তিন ঘণ্টা ব্যায়াম অনুশীলন করেছিল।

আনুষ্ঠানিকভাবে কীর্তি গড়ার আগে শ্রুষ্টি বাড়িতে ১২৬ ঘণ্টা করে দুবার ম্যারাথন নৃত্য অনুশীলন করেছিল। ওই সময় নিজেকে সতেজ রাখতে সে নারিকেলের পানি ও চকলেট খেয়েছিল।

শ্রুষ্টি বলেন, “কঠোর অনুশীলনের কারণে শরীর ও মনের সব পরিবর্তনের সঙ্গে পরিচিত ছিলাম। তাই শেষ অবধি শান্ত ও সুরক্ষিত ছিলাম।”

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের নিয়ম অনুযায়ী, এমন ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তি তার প্রতি ঘণ্টার কাজের জন্য পাঁচ মিনিট করে বিরতি পেয়ে থাকেন। শ্রুষ্টি অধিকাংশ সময় তার বিরতি নিত মধ্যরাতে। এ সময় সে একটু ঘুমিয়ে নিয়েছিল অথবা মস্তিষ্ক সতেজ করতে মা-বাবার সঙ্গে কথা বলেছিল।

About

Popular Links