Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভিয়েতনাম যুদ্ধের ‘তথ্য ফাঁসকারী’ এলসবার্গের মৃত্যু

ভিয়েতনাম যুদ্ধ বন্ধে বড় ভূমিকা রেখেছিল এলসবার্গের ফাঁস করা পেন্টাগন পেপারস নথি

আপডেট : ১৭ জুন ২০২৩, ০৮:০৪ পিএম

ভিয়েতনাম যুদ্ধ নিয়ে মার্কিন প্রশাসনের চাঞ্চল্যকর নথি “পেন্টাগন পেপারস” ফাঁসকারী ড্যানিয়েল এলসবার্গ মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯২।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) ক্যালিফোর্নিয়ার কিংস্টন হাসপাতালে ৯২ বছর বয়সে মারা যান। তিনি দীর্ঘদিন ক্যান্সারে ভুগছিলেন। খবরটি নিশ্চিত করেছে তার পরিবার।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

১৯৭১ সালে “পেন্টাগন পেপারস” ফাঁসের কারণে “আমেরিকার সবচেয়ে বিপজ্জনক ব্যক্তি” হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক এই সামরিক বিশেষজ্ঞকে।

ভিয়েতনাম যুদ্ধের সময়ে হোয়াইট হাউজের পরমাণু অস্ত্র কৌশল সংক্রান্ত পরামর্শদাতা ছিলেন ড্যানিয়েল। তিনি মনে করেছিলেন যুদ্ধ সংক্রান্ত গোপন তথ্য নাগরিকরা জানলে রাজনৈতিক চাপে বন্ধ হতে পারে সংকট।

ফলে যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসের সাংবাদিকের হাতে তিনি সব গোপন নথিপত্র তুলে দিয়েছিলেন। ওই নথির ভিত্তিতে সেই সময় প্রকাশিত হয় “পেন্টাগন পেপারস”। তাই নয়, মার্কিন প্রশাসনের গুরুপূর্ণ সব নথি পরে আরও একটি সংবাদপত্রের কাছে পৌঁছে যায়। এই ঘটনাগুলো নজরে আসে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট রিচার্ড রিক্সনের। আলোচিত এ ঘটনায় পরবর্তী মামলাও হয়।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের বন্ধ করতে চেষ্টা চালায় নিক্সন প্রশাসন। এলসবার্গের বিরুদ্ধে ১৯৭১ সালে লস অ্যাঞ্জেলেসের ফেডারেল আদালতে চুরি, গুপ্তচরবৃত্তি, ষড়যন্ত্রসহ কয়েকটি অভিযোগ আনা  হয়। যদিও পরবর্তীতে তা খারিজ হয়ে যায়।

তার পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, “ড্যানিয়েল ছিলেন একজন সত্যের সন্ধানকারী এবং একজন দেশপ্রেমিক। একজন যুদ্ধবিরোধী মানুষ, পিতা, দাদা, অনেকের কাছে একজন প্রিয় বন্ধু এবং আরও অনেকের জন্য অনুপ্রেরণা। তাকে গভীরভাবে মনে পড়বে আমাদের।”

ড্যানিয়েল ১৯৩১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে জন্মগ্রহণ করেন। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন। পড়াশোনা শেষে মার্কিন নৌবাহিনীতে যোগ দেন।

“পেন্টাগন পেপারস” ফাঁসের ঘটনার পর বাকি জীবনেও এলসবার্গ সবসময় মার্কিন সরকারের সমালোচনায় মুখর থেকে জবাবদিহিতার অধীনে আনতে চেষ্টা করে গেছেন।

২০২২ সালে বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এলসবার্গ জানান, ২০১০ সালে উইকিলিকসের নথি ফাঁসের পেছনেও তিনি একজন গোপন “ব্যাক-আপ” হিসেবে যুক্ত ছিলেন।   

গত মার্চে ওয়াশিংটন পোস্টে দেওয়া এক ইমেইলে এলসবার্গ বলেন, “৯৬৯ সালে আমি যখন পেন্টাগন পেপারস ফাঁসের জন্য কপি করছিলাম, তখন আমি ভেবেই নিয়েছিলাম যে, জীবনের বাকি অংশ আমাকে জেলেই কাটাতে হবে। তবে এতে করে ভিয়েতনাম যুদ্ধ দ্রুত বন্ধ হতে পারে ভেবে আমি জেলের ভাগ্য সানন্দে মেনে নিতে প্রস্তুত ছিলাম।”

About

Popular Links