Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘বেশি’ খাওয়ায় বুফে রেস্তোরাঁর দরজাই বন্ধ ফুড ভ্লগারের জন্য!

রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, ক্যাং একাই চার কেজি চিংড়ি, দেড় কেজি মাংস ও ৩০ বোতল দুধ খেয়ে ফেলেন

আপডেট : ২০ নভেম্বর ২০২১, ০১:০৭ এএম

বর্তমান সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ফুড ভ্লগিংয়ের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। নতুন কোনো রেস্তোরাঁ বা খাবারের সন্ধানে ফুড ভ্লগাররা যেমন দৌড়ে বেড়ান তেমনি রেস্তোরাঁ মালিকরাও ফুড ভ্লগারদের সাদর সম্ভাষণ জানান ক্রেতাদের আকৃষ্ট করার জন্য।

তবে চীনের ফুড ভ্লগার ক্যাং-এর বেলায় ঘটেছে ঠিক বিপরীত ঘটনা। ভোজনরসিক ক্যাং-এর জন্য রেস্তোরাঁর দরজাই বন্ধ করে দিয়েছে চীনের চাংশা শহরের “হানদাদি সি ফুড বারবিকিউ বাফেট” নামে এক রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে লাইভে এসে খাওয়া-দাওয়া করা ক্যাং-কে “বেশি” খাওয়ার জন্য “ব্যান” করা হয়েছে।

নিউ ইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী, রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, ক্যাং প্রথমবার এসে দেড় কেজি মাংস খেয়েছিলেন। তার পরেরবার সাড়ে তিন কেজি থেকে চার কেজি চিংড়ি খেয়েছেন। দুধ খেতে শুরু করলে একাই ২০ থেকে ৩০ বোতল খেয়ে ফেলতেন।

রেস্তোরাঁর মালিক জানিয়েছেন, ক্যাং-এর আসা মানেই তার পকেটও ফাঁকা, রেস্তোরাঁর খাবারও ফাঁকা। মাংসের ট্রেতে নজর পড়লে ট্রে খালি করে ফেলত ক্যাং, আবার চিংড়ি খেতে মন চাইলে পুরো ট্রেটাই তুলে নিয়ে যেত।

এদিকে, “বেশি” খাওয়ায় কালো তালিকাভুক্ত হয়ে ক্ষুব্ধ ক্যাং। তিনি বলেন, “বেশি খাওয়া কী দোষের? আমি বেশি খেতে পারি তাই এমন বৈষম্যের শিকার হবো? আমি তো খাবার নষ্ট করিনি।”

তবে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই ক্যাংকে সমর্থন করে বলেছেন, “খাবার খাওয়াতে না পারলে বুফে রেস্তোরাঁ খোলার দরকার কী?” অনেকেই আবার রেস্তোরাঁর মালিকের দুর্দশার কথা ভেবে দুঃখপ্রকাশ করেছেন।

About

Popular Links