Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৬৯ বিদেশি শিক্ষার্থী ধর্ষণে অভিযুক্ত

ওই শিক্ষার্থীরা গত বছরের ডিসেম্বর থেকে প্রায় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে ১০০ বার যৌন নিপীড়ন করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে

আপডেট : ১৫ মার্চ ২০২২, ০২:১৩ পিএম

দক্ষিণ কোরিয়ার স্থানীয় একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৯ জন বিদেশি শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। 

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) পুলিশের বরাত দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ মাধ্যম কোরিয়া টাইমস এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, অভিযুক্তদের মধ্যে বাংলাদেশ এবং নেপালের শিক্ষার্থীও রয়েছেন। তবে তাদের মধ্যে বাংলাদেশের কতজন শিক্ষার্থী রয়েছেন তা জানা সম্ভব হয়নি। এ ঘটনার পর অভিযুক্ত ৬৯ জনকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটির পুলিশ।

গ্যাংওন প্রদেশের পুলিশ জানায়, তারা একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৯ জন বিদেশি শিক্ষার্থীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। ওই শিক্ষার্থীরা গত বছরের ডিসেম্বর থেকে প্রায় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে ১০০ বার যৌন নিপীড়ন করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আরও তদন্ত চলছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই কিশোরীকে স্ন্যাক্সের প্রস্তাব এবং আড্ডার প্রলোভন দেখিয়ে অভিযুক্তরা তাদের বাসায় ডেকে আনে। দেশটির আইনপ্রয়োগকারী কর্তৃপক্ষ এই ঘটনাকে দক্ষিণ কোরিয়ার আইনে ধর্ষণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। কারণ, ভুক্তভোগী একজন নাবালিকা এবং অভিযুক্ত শিক্ষার্থীরা বিষয়টি জানতেন। 

ধর্ষণের বিষয়টি গত আগস্টের শুরুর দিকে ভুক্তভোগী কিশোরী তার স্কুল শিক্ষকের সঙ্গে পরামর্শের সময় জানায়। পরবর্তীতে এ বিষয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ করা হয়। 

কোরীয় আইন অনুযায়ী, ১৬ বছরের নিচের অথবা সম্মতি জানানোর বয়স না হলে শিশুদের সঙ্গে কোনো প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি যৌনতায় লিপ্ত হলে তার বিরুদ্ধে শিশু যৌন নিপীড়ন অথবা ধর্ষণের অভিযোগ আনা যাবে। ভুক্তভোগীর বয়স জানার পরও তার সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হলে সেটিকে যৌন অপরাধ হিসেবে বিবেচনার বিধান রয়েছে।

About

Popular Links