Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মহারাষ্ট্রে কুকুরছানাদের ধরে ধরে ‘খুন’ করছে বানরের দল

গত মাসে একটি বানরছানাকে মেরে ফেলে এক দল কুকুর। এরপর প্রতিশোধপরায়ন হয়ে ওঠে বানরের দল থেকে শুরু হয় বানরদের এ হত্যাযজ্ঞ

আপডেট : ১৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৪৮ পিএম

ভারতের মুম্বাই থেকে ৩০০ মাইল উত্তরে লাভুল এলাকায় অন্তত ২৫০টি কুকুর ছানাকে হত্যা করেছে এক দল বানর। আর বানর বাহিনী কুকুরছানাগুলোকে যেনতেনভাবে নয়, হত্যা করেছে উঁচু ভবন কিংবা গাছ থেকে ফেলে দিয়ে। এ ঘটনায় দুটি বানরকে আটক করেছে স্থানীয় বনবিভাগ।

এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি।

লাভুলের স্থানীয়রা জানান, বানরদের এ ঘটনার সূত্রপাত হয় গত মাসে। অসাবধানতায় গাছ থেকে পড়ে যাওয়া একটি নিরীহ বানরছানাকে কামড়ে মেরে ফেলে  একদল কুকুর। এরপর থেকেই শুরু হয় বানরদের হত্যাযজ্ঞ। তখন থেকে বানরের দল কুকুরছানা দেখলেই তাদেরকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে এবং কখনও বহুতল ভবন আবার কখনও উঁচু গাছ থেকে নিচে ছুঁড়ে ফেলে দিয়ে হত্যা করছে।

স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, ওই গ্রামে আর এখন কোনো কুকুর ছানাই জীবিত নেই। কুকুর নিধন পর্ব শেষ করে বানর দলের নতুন লক্ষ্যবস্তু এখন স্কুলগামী শিশুরা। বানরদের ত্রাসে আতঙ্কিত গ্রামবাসী বন দপ্তরের শরণাপন্ন হয়। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। উল্টো স্থানীয়দের মধ্যেই কেউ না কেউ প্রায় প্রতিদিনই বানরের আক্রমণের শিকার হয়েছেন।

তবে শেষ পর্যন্ত দুটি বানরকে আটক করা হয়েছে। নাগপুর বন বিভাগের একটি দল বানর দুটিকে আটক করেছে বলে জানিয়েছেন বন কর্মকর্তা শচীন কান্দ।

তিনি আরও জানান, বানর দুটিকে নাগপুরে নিয়ে সেখানকার জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হবে।

এদিকে, অদ্ভুতুড়ে এ ঘটনাটি যে শুধু সংশ্লিষ্ট এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে তা না, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও পরিণত হয়েছে হাস্যরসের বিষয়ে। অনেকেই এটিকে “বানর বনাম কুকুরের মধ্যকার যুদ্ধ” বলেও অভিহিত করেছেন। আবার কেউ কেউ প্রাণীদের মধ্যে নৃশংসতার বিষয়েও উদ্বিগ্নতা প্রকাশ করেন।

About

Popular Links