Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে ভারতের চন্দ্রযানের সফল অবতরণ

এটি চাঁদের ভূপৃষ্ঠের বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করবে, বিশ্লেষণ করবে, এমনকি নানা ছবি ও তথ্য পৃথিবীতে পাঠাবে

আপডেট : ২৩ আগস্ট ২০২৩, ০৯:৪০ পিএম

চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে সফলভাবে অবতরণ করেছে ভারতের চন্দ্রযান-৩। বুধবার (২৩ আগস্ট) ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (আইএসআরও) কর্মকর্তারা এটা নিশ্চিত করেছেন।

ভারতের স্থানীয় সময় ৬টা ৪ মিনিটে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে চন্দ্রযান-৩ অবতরণ করে। ল্যান্ডার বিক্রমের অবতরণ প্রক্রিয়া ৫টা ৪৫ মিনিটে শুরু করেন বিজ্ঞানীরা।

অবতরণ প্রক্রিয়া শুরুর পর বিক্রমের গতি ১,১৫০ মিটার প্রতি সেকেন্ডে কমিয়ে আনা হয়। চারটি ইঞ্জিনের মধ্যে দুটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ভারতের প্রখ্যাত পদার্থ বিজ্ঞানী বিক্রম সারাভাইয়ের (১৯১৯-১৯৭১) নামে ল্যান্ডারটির নামকারণ করা হয়েছে। এই ল্যান্ডারে একটি রোভার রয়েছে, যার নাম প্রজ্ঞান।

এই রোভারই চাঁদের ভূপৃষ্ঠের বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করবে, বিশ্লেষণ করবে, এমনকি নানা ছবি ও তথ্য পৃথিবীতে পাঠাবে। 

চন্দ্রযান থেকে ল্যান্ডারের অবতরণের ১৭ থেকে ২০ মিনিট অত্যন্ত বিপদজ্জনক ছিল। কারণ এ সময় ল্যান্ডারকে যথাসময়ে একই উচ্চতায় সবগুলো ইঞ্জিনকে সচল করতে হয়েছে। পরিমাণ মতো জ্বালানি ব্যবহার করতে হয়েছে। ঠিক কোন জায়গায় ল্যান্ডারটি নামবে তা সতর্কতার সঙ্গে স্ক্যান করতে হয়েছে। কারণে চাঁদের এই অংশে অন্য অংশের তুলনায় বেশি গর্ত ও খাত রয়েছে। 

চন্দ্রযান-৩ এর ল্যান্ডার সফলভাবে চাঁদের মাটি স্পর্শ করা নিয়ে শঙ্কার দুইটি কারণ ছিল। ২০১৯ সালে চন্দ্রযান-২ চাঁদের একই অংশে অবতরণের মাত্র কয়েক মিনিট আগে বিধ্বস্ত হয়।

এছাড়া চাঁদের একই অংশে অবতরণ করতে গিয়ে রবিবার বিধ্বস্ত হয়েছে রাশিয়ার চন্দ্রযান লুনা-২৫। লুনা-২৫ যথাসময়ে ইঞ্জিন বন্ধ করতে ব্যর্থ হয়েছিল।

এদিকে চন্দ্রযানের সফল অবতরণের পর ভার্চুয়ালি বক্তব্য দেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, “টিম চন্দ্রযানকে ও বিজ্ঞানীদের আমার শুভেচ্ছা। তারা এই মুহূর্তটির জন্য বছরের পর বছর ধরে পরিশ্রম করেছেন। ১৪০ কোটি দেশবাসীকে শুভেচ্ছা। ভারতের উদয়মান ভাগ্যের আহ্বান এই মুহূর্তে। অমৃতকালের আহ্বান। অন্তরীক্ষে নতুন ভারতের উদয়। আমি এখন দক্ষিণ আফ্রিকায়। দেশবাসীর সঙ্গে আমার মনও এখানেই ছিল।”

চাঁদে সফল অবতরণ করেছিল মাত্র তিনটি দেশ যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া ও চীন। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলো ভারত।

অবতরণের দৃশ্য সরাসরি সম্প্রচার হয়। দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিকস সম্মেলনে যোগদানকারী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অনলাইনে যোগ দেন। সম্প্রচার দেখার জন্য সন্ধ্যার সময় স্কুল খোলা রাখা হয়।

সংবাদপত্র এবং নিউজ চ্যানেলজুড়ে ব্যানার শিরোনাম ও অবতরণের ক্ষণগণনার টাইমার ছিল।

গত ১৪ জুলাই দুপুর ২টা ৩৫ মিনিটে অন্ধ্র প্রদেশের শ্রীহরিকোটার সতীশ ধাওয়ান স্পেস সেন্টারের “লঞ্চিং প্যাড” থেকে সফল উৎক্ষেপণ হয় ‘চন্দ্রযান-৩’। মোট দুই-তৃতীয়াংশ অতিক্রম করেছে মহাকাশ যানটি। উৎক্ষেপণের ২২ দিন পর চন্দ্রযান-৩ পৌঁছেছে চাঁদের কক্ষপথে। তার আগে পৃথিবীর মধ্যাকর্ষণ বলের টানে কক্ষপথে ঘুরছিল।

About

Popular Links