Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সৌদি আরবে বন্যা ও ধূলিঝড়ে নিহত ১২

জনসাধারণকে যার যার পরিবার নিয়ে সাবধানে অবস্থান নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে

আপডেট : ৩১ জানুয়ারি ২০১৯, ০৪:৪৪ পিএম

মরুভূমির দেশ সৌদি আরবে পাঁচদিন ধরে ধূলিঝড়সহ ভারী বর্ষণে মদিনা শহর এবং উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় বন্যা দেখা দিয়েছে। এ পর্যন্ত বন্যায় ১২ জন নিহত হয়েছে বলে দেশটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। এছাড়া ধূলিঝড় ও বন্যায় ১৭০ জন আহত হওয়ার খবর জানায় বিভিন্ন গণমাধ্যম।

রিয়াদ ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আরব নিউজ জানায়, গত রবিবার থেকে শুরু হওয়া টানা বৃষ্টিপাতের ফলে প্লাবিত হয়েছে বিভিন্ন অঞ্চলের প্রধান প্রধান রাস্তাঘাট। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে তাবুক, আরার ও আল-জাওয়াফ অঞ্চলের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সৌদি আরবের বেসামরিক প্রতিরক্ষা কর্তৃপক্ষ জানায়, তাবুকে ১০ জন, মদিনায় একজন এবং উত্তরাঞ্চলীয় সীমান্তে একজন মারা গেছে।

আরব নিউজ জানায়, ভারী বর্ষণের কারণে মরু উপত্যকায় বন্যা দেখা দিয়েছে। বন্যা কবলিত এলাকাগুলোতে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। দুর্গত এলাকাগুলো থেকে এরই মধ্যে তিন শতাধিক লোককে উদ্ধার করা হয়েছে।

আরব নিউজ আরও জানায়, বৃষ্টিপাত ও ঝড়ের ফলে জনসাধারণের দৃষ্টিশক্তির অস্বচ্ছতা দেখা দিয়েছে। রাজধানী রিয়াদও এ ঝড়ের কবলে পড়ে। সৌদি কর্তৃপক্ষ সবাইকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বনের অনুরোধ জানিয়েছে।

দেশটির জননিরাপত্তা বিভাগের মুখপাত্র মেজর মোহাম্মদ আল-হাম্মাদি জানান, রিয়াদ, মক্কা, উত্তরাঞ্চলীয় সীমান্ত এলাকা, মদিনা, আসির, জাজান ও আল-জাওয়াফ এলাকায় অস্থিতিশীল আবহাওয়া বিরাজ করছে।

সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক জনসাধারণকে যার যার পরিবার নিয়ে সাবধানে অবস্থান নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন। উপত্যকা কিংবা বিপজ্জনক এলাকাগুলো এড়িয়ে যাওয়ার ব্যাপারেও সবাইকে সতর্ক করা হয়েছে।

সিভিল ডিফেন্স কর্তৃপক্ষ জানায়, তাবুক ও আল-জাওয়াফ অঞ্চল থেকে ৬৫ জন ও দুবা থেকে ৩৭ জন বন্যাকবলিত মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। জনসাধারণকে গাড়ি চালানো থেকে বিরত থাকাসহ সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এদিকে জেদ্দার কিং আবদুল আজিজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর জানিয়েছে, চলমান আবহাওয়ার ফলে বিভিন্ন ফ্লাইট বিলম্বিত কিংবা বাতিল হতে পারে। যাত্রী সাধারণকে এ ব্যাপারে খোঁজখবর নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

দেশটির আবহাওয়া বিভাগের সর্বশেষ পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টির সঙ্গে সঙ্গে বজ্রপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। একই সঙ্গে রিয়াদ ও পূর্বাঞ্চলীয় এলাকায় ঝড়ো বাতাস ও ধূলিঝড় বয়ে যেতে পারে। এছাড়া তাপমাত্রা বিশেষভাবে হ্রাস পেতে পারে। মক্কা শহরে ঘণ্টায় ৩৭ কিলোমিটার ও জেদ্দায় ৫০ কিলোমিটার বেগে বাতাস বয়ে যেতে পারে বলেও জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার দিনের প্রথম ভাগে আল-জাওয়াফ, উত্তরাঞ্চলীয় সীমান্ত, হাইল, কাসিম ও পূর্বাঞ্চলে অস্থিতিশীল আবহাওয়া বিরাজ করতে পারে বলেও আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

About

Popular Links