Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

যুদ্ধ-মানবিক সঙ্কটে জর্জরিত গাজা, বড় হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল

গাজার ২.৩ মিলিয়ন নাগরিক তীব্র ক্ষুধা ও রোগের বিস্তারের মুখোমুখি হয়ে মানবিক সঙ্কটে দিন পার করছেন

আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৪৮ পিএম

গাজার মধ্যাঞ্চলে ইসরায়েলি হামলায় ৪০ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছে। এছাড়া খান ইউনিস শহরের নাসের হাসপাতালে হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েল। সেখান থেকে ১৪০ জন রোগী অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছে মানবাধিকার সংস্থাগুলো। ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ বলছে, সেখান থেকে হামলাকারীরা সেনা প্রত্যাহার করলেও আবারও হামলা চালাচ্ছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, নাসের হাসপাতালের ১১০ রোগী সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চলছে। চার দিন আগে বিদ্যুৎ ও অক্সিজেনের অভাবে যারা মারা গেছেন, তাদের দেহ পচতে শুরু করেছে। যা অন্য রোগীদের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিয়েছে।

গাজার ২.৩ মিলিয়ন নাগরিক তীব্র ক্ষুধা ও রোগের বিস্তারের মুখোমুখি হয়ে মানবিক সঙ্কটে দিন পার করছেন।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

এদিকে ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে জি-২০ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সম্মেলনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতির প্রধান জোসেপ বোরেল বলেছেন, “ইসরাইল একতরফাভাবে ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রকে অবরুদ্ধ করতে পারে না।”

গাজায় ইসরায়েলের হামলায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির দাবিতে নিউইয়র্ক সিটিতে ইসরায়েল-পন্থী লবি গ্রুপ আমেরিকান ইসরায়েল পাবলিক অ্যাফেয়ার্স কমিটির (এআইপিএসি) কার্যালয়ের সামনে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী মিছিল করেছে।

আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) চীন বলেছে, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরায়েলের দখলদারিত্বের বিষয়ে শুনানিতে ফিলিস্তিনিদের ন্যায়বিচার অস্বীকার করার সুযোগ নেই।

হেগের আদালতে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আইন উপদেষ্টা মা জিনমিন বলেছেন, “বিচার দীর্ঘকাল বিলম্বিত হয়েছে, তবে এটি অস্বীকার করা উচিত নয়।”

আঞ্চলিকভাবে উত্তেজনা বাড়তে থাকায় লেবাননের সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ বলেছে, তারা বেশ কয়েকটি ইসরায়েলি ঘাঁটি আক্রমণ করেছে। মেটুলা ও মানারা শহরে জড়ো ইসরায়েলি সেনাদের জড়ো হওয়ার দুই ভবনে তারা হামলা চালিয়েছে।

গাজার যুদ্ধ শেষ হলে ইসরায়েলের ওপর তাদের হামলা বন্ধ হবে বলে জানিয়েছে গোষ্ঠীটি।

এদিকে অধিকৃত পশ্চিম তীরে জেনিন শরণার্থী শিবিরে একটি গাড়িতে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত একজন নিহত হয়েছে।

অধিকৃত পশ্চিম তীরের হেবরনের দক্ষিণে খালেত আল-ফাররা সম্প্রদায়ের দুটি বাড়ি, একটি পানির কূপ এবং বিদ্যুৎ নেটওয়ার্কও ধ্বংস করেছে ইসরায়েল বাহিনী।

বুধবার অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের কাছে একটি ইসরায়েলি চেকপয়েন্টের কাছে তিন ফিলিস্তিনি বন্দুকধারী গাড়ি চালকদের ওপর গুলি চালালে কমপক্ষে একজন নিহত এবং আটজন আহত হয়।

অপরদিকে ইসরায়েলের অর্থমন্ত্রী বেজালেল স্মোট্রিচ বলেছেন, “দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ইসরায়েলি বসতিতে আরও ৩,৩৪৪ টি নতুন বাড়ি নির্মাণের অনুমতি দেবে।”

চার মাসেরও বেশি সময় ধরে গাজায় ধ্বংসজজ্ঞ চালাচ্ছে ইসরায়েল। এতে ২৮ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি নিহত ও প্রায় ৬৮ হাজার মানুষ আহত হয়েছেন। হতাহত অনেকেই ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়েছেন।

About

Popular Links