Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

জাতিসংঘ: রুশ হামলায় ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন দেড় কোটি ইউক্রেনীয়

এই ঘটনাকে ভয়াবহ মানবিক মূল্য দেওয়ার সমান বলে অভিহিত করেন তিনি

আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৬:৪৮ পিএম

রাশিয়ার হামলার কারণে দুই বছরে অন্তত দেড় কোটি ইউক্রেনীয় ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার প্রধান ভলকার তুর্ক।

এই ঘটনাকে ভয়াবহ মানবিক মূল্য দেওয়ার সমান বলে অভিহিত করেন তিনি।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা।

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) জানিয়েছে, অন্তত ৬০ লাখ মানুষ শরণার্থী হিসেবে দেশের বাইরে বসবাস করছে। অন্তত ৩৭ লাখ মানুষ ইউক্রেনের মধ্যে বাস্তুচ্যুত।

ইউক্রেনে রাশিয়ার অভিযান তৃতীয় বছরে পৌছেছে। ২৪ ফেব্রুয়ারি ওই হামলার ঘটনাকে সামনে রেখে আইওএম মহাপরিচালক অ্যামি পোপ বলেন, ‘‘ব্যাপক ধ্বংসজজ্ঞ, জীবনহানি ও দুর্ভোগ অব্যাহত রয়েছে।’’

ইউক্রেনের জনসংখ্যার প্রায় এক-তৃতীয়াংশ অন্তত দেড় কোটি মানুষ যুদ্ধের কোনো না কোনো সময় তাদের বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়েছিল। তবে ৪৫ লাখের মতো মানুষ আবার ফিরেও এসেছে।

বৃহস্পতিবার ভলকার তুর্ক বলেন, ‘‘যুদ্ধের শেষের কোনো পথ দেখা যাচ্ছে না। এটি লাখ লাখ বেসামরিক নাগরিকের জন্য অপরিসীম দুর্ভোগ সৃষ্টি করেছে।’’

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘‘ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘন চলছে। জীবন ও জীবিকা ধ্বংস হয়েছে।’’

তিনি আরও বলেন, ‘‘ইউক্রেনের এই যুদ্ধের দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব প্রজন্মের জন্য অনুভূত হবে।’’

জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার তথ্য বলছে, ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে সংঘাতে বেসামরিক ১০,৫৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে বেসামরিক অন্তত ১৯,৮৭৫ জন।

প্রকৃত সংখ্যা সম্ভবত আরও বেশি বলেও জানায় সংস্থাটি।

ইউক্রেন ও পূর্ব ইউরোপের ১১ দেশে অন্তত ৬৫ লাখ শরণার্থীকে সহায়তা করেছে আইওএম।

সংস্থাটির মতে, ২০২৪ সালে দেড় কোটির বেশি মানুষের কোনো না কোনো মানবিক সহায়তার প্রয়োজন আছে।

যুদ্ধ শুরুর পর থেকে সংস্থাটি ৯৫৭ মিলিয়ন ডলার অনুদান পেয়েছে।

জাতিসংঘ বলেছে, ইউক্রেনে মানবিক সহায়তার জন্য ও পালিয়ে আসা শরণার্থীদের জন্য এই বছর ৪.২ বিলিয়ন ডলার প্রয়োজন।

About

Popular Links