Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

হামাসের শীর্ষনেতা মারওয়ান ইসা নিহত, দাবি ইসরায়েলের

ইসরায়েলের দাবি সঠিক হলে, অক্টোবরে ইসরায়েলি হামলা শুরুর পর থেকে গাজায় নিহত হামাসের সর্বোচ্চ পদধারী ইসা

আপডেট : ২৭ মার্চ ২০২৪, ০৫:২৪ পিএম

হামাসের ডেপুটি মিলিটারি কমান্ডার মারওয়ান ইসা এ মাসের শুরুর দিকে ইসরায়েলি হামলায় নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন ইসরায়েলের সামরিক মুখপাত্র। তবে গাজা উপত্যকা শাসনকারী ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাসের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) এক টেলিভিশন বিবৃতিতে ইসরায়েলের রিয়ার অ্যাডমিরাল ড্যানিয়েল হাগারি বলেন, “আমরা সব গোয়েন্দা তথ্য যাচাই করেছি। প্রায় দুই সপ্তাহ আগে আমরা যে হামলা চালিয়েছিলাম তাতে মারওয়ান ইসাকে নির্মূল করা হয়েছে।”

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গত সপ্তাহে ঘোষণা করে, ইসরায়েলি হামলায় ইসা নিহত হয়েছেন। তবে ইসরায়েল এখন পর্যন্ত তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেনি।

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী এর আগে বলেছিল, তারা ৯-১০ মার্চ মধ্য গাজার একটি ভূগর্ভস্থ কম্পাউন্ডে বিমান থেকে ইসার ওপর হামলা চালানো হয়েছিল।

ইসা হামাসের সামরিক শাখা কাসাম ব্রিগেডের দীর্ঘদিনের নেতা মোহাম্মদ দেইফের ডেপুটি ছিলেন।

২০২৩ সালের ৭ অক্টোবরের হামলায় কথিত মাস্টারমাইন্ডের অন্যতম একজন ইয়াহিয়া সিনওয়ার। ধারণা করা হচ্ছে, মোহাম্মদ দেইফ ও সিনওয়ার জীবিত এবং তারা গাজায় লুকিয়ে আছেন। ইসরায়েল তাদের হত্যার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছে।

ইসরায়েল বলেছে, যুদ্ধ শুরুর পর থেকে ১৩,০০০ এরও বেশি হামাস যোদ্ধাকে হত্যা করেছে তারা। যদিও তাদের দাবির সমর্থনে কোনো প্রমাণ দেয়নি তেল আবিব।

অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেম থেকে আল জাজিরা প্রতিবেদক বলেন, “আক্রমণের শুরু থেকেই ইসরায়েলি কর্মকর্তারা বলে আসছে, তারা হামাস নেতৃত্ব এবং মাটিতে থাকা প্রতিটি হামাস যোদ্ধাকে খুঁজে বের করে হত্যা করবে।”

ওই প্রতিবেদক বলেন, “এটা শুধু গাজাতেই হবে না। এটি সারা বিশ্বে- লেবানন, তুরস্ক ও কাতারের মতো দেশেও হতে চলেছে।”

গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির দাবিতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে একটি প্রস্তাব পাস করার একদিন পার হয়েছে। অবরুদ্ধ ছিটমহলটিতে প্রায় ছয় মাস ধরে চলা আক্রমণ বন্ধে আহ্বান জানিয়ে আসছে আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী। ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেছেন, “এরইমধ্যে ৩২,০০০ এর বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।”

গাজার ২.৩ মিলিয়ন বাসিন্দার ৯০%-এর বেশি মানুষ বাস্তুচ‍্যূত হয়েছে।

ইসরায়েলের দাবি সঠিক হলে, অক্টোবরে ইসরায়েলি হামলা শুরু হওয়ার পর থেকে গাজায় নিহত হওয়া হামাসের সর্বোচ্চ নেতা হবেন ইসা।

ইসরায়েল বছরের পর বছর ধরে হামাসের বেশ কয়েকজন বড় নেতাকে হত্যা করেছে।

তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষক মারওয়ান বিশারা বলেছেন, “ইসরায়েল যতবারই একজন হামাস নেতাকে হত্যা করে বিজয় ঘোষণা করেছে, ততবার তার জায়গা নিতে কয়েক ডজন নেতা এগিয়ে এসেছেন।”

About

Popular Links