Monday, June 17, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাহুল-অমিত-অভিষেক কার সম্পত্তির পরিমাণ কত

তিনজনই ভারতের চলমান লোকসভা ভোটে লড়ছেন। তিনজনই হলফনামায় তাদের সম্পত্তির পরিমাণের কথা জানিয়েছেন

আপডেট : ১৭ মে ২০২৪, ১২:০২ পিএম

স্থাবর-অস্থাবর মিলিয়ে ভারতীয় কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর ২০ কোটির বেশি, বিজেপি প্রধান অমিত শাহের ৬৫ কোটি ও তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের ১ কোটি ২৬ লাখ রুপির সম্পত্তি আছে।

রাহুল, অমিত ও অভিষেক তিনজনই ভারতের চলমান লোকসভা ভোটে লড়ছেন। তিনজনই হলফনামায় তাদের সম্পত্তির পরিমাণের কথা জানিয়েছেন।

সেখান থেকেই দেখা যাচ্ছে, ৫৩ বছর বয়সী রাহুল গান্ধী ২০২২-২৩ আর্থিক বছরে আয় করেছেন এক কোটি দুই লাখ টাকা। তার হাতে এখন ৫৫ হাজার রুপি আছে। ২০২১-২২ সালে তার আয় ছিল ১ কোটি ৩১ লাখ রুপি। শেয়ার বাজারে রাহুল ৪ কোটি ৩০ লাখ এবং মিউচুয়াল ফান্ডে ৩ কোটি ৮১ লাখ রুপি বিনিয়োগ করেছেন। এছাড়া ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট, বিমা ও অন্যত্র তিনি ৬১ লাখ ৫২ হাজার রুপি বিনিয়োগ করেছেন। তার কাছে ৩৩৩ গ্রাম গহনা আছে, যার দাম ৪ লাখ ১২ হাজার রুপি। তার স্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ৯ কোটি ২৪ লাখ টাকা। আর অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ হলো ১১ কোটি ১৪ লাখ রুপি। অস্থাবর সম্পত্তির মধ্যে বোন প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে দিল্লির মেহরৌলিতে ফার্ম হাউস আছে, বাড়ি আছে। এছাড়া গুরুগ্রামে তার দুইটি বাণিজ্যিক স্পেস আছে। তার আর্থিক দায়ের পরিমাণ ৪৯ লাখ ৪০ হাজার রুপি।

রাহুল ফ্লোরিডার রলিনস কলেজ থেকে স্নাতক এবং ক্যামব্রিজ ইউনিভার্সিটির ট্রিনিটি কলেজ থেকে এমফিল করেছেন।

অমিত শাহর হলফনামা

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ তার হলফনামায় জানিয়েছেন, তার ও তার স্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ ৬৫ কোটি ৬৭ লাখ রুপি। ইকোনমিক টাইমস জানাচ্ছে, ২০১৯ সালে তার সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ৩০ কোটি ৪৯ লাখ রুপি। ক্যাশ, ব্যাংকের সেভিংস অ্যাকাউন্ট, মেয়াদি জমা প্রকল্প, সোনা, রূপা এবং উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া সম্পত্তির পরিমাণ ২০ কোটি ২৩ লাখ রুপি। এর মধ্যে ১৭ কোটি ৪৬ লাখের শেয়ার এবং ৭২ লাখ ৮৭ হাজার রুপি মূল্যের স্বর্ণ আছে। হলফনামায় তার নামে কোনো গাড়ির উল্লেখ করেননি অমিত শাহ।

তার স্ত্রী সোনাল শাহর ক্যাশ, ব্যাংকে জমা রাখা, শেয়ারে বিনিয়োগ করা অর্থ এবং গহনা মিলে ২২ কোটি ৪৬ লাখ রুপি আছে। সোনা ও রূপার গহনা আছে এক কোটি ১০ লাখ রুপির। অস্থাবর সম্পত্তির মধ্যে অমিত শাহর ১৬ কোটি ৩১ লাখ রুপির সম্পত্তি আছে। এর মধ্যে কৃষি জমি, আংশিক চাষযোগ্য জমি, একাধিক বাড়ি আছে। সোনাল শাহরও একাধিক বাড়ি ও জমি আছে। তার এই সম্পত্তির পরিমাণ ছয় কোটি ৫৫ লাখ রুপি।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হলফনামা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তার হলফনামায় বলেছেন, ২০২২-২৩ আর্থিক বছরে তার আয় ছিল ৮২ লাখ রুপির বেশি। ২০২১-২২ সালে তার আয় ছিল এক কোটি ৫১ লাখ রুপি। অভিষেক জানিয়েছেন, তার হাতে ৭ লাখ ৭২ হাজার রুপি আছে। তার স্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ এক কোটি ২৬ লাখ রুপি। এর মধ্যে ব্যাংক অ্যাকাউন্টে রাখা টাকা, বিমা, স্বর্ণ, রূপা মিলে ১ কোটি ২৬ লাখ টাকা ও তার স্ত্রীর ৭৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা আছে। তার নামে কোনো জমি বা বাড়ির উল্লেখ হলফনামায় নেই।

আয়ের উৎস হিসাবে অভিযেক জানিয়েছেন, বেতন, সম্মানী ও সুদ থেকে তার আয় হয়। তিনি আইআইপিএম থেকে বিবিএ ও এমবিএ ডিগ্রি নিয়েছেন।

About

Popular Links