Saturday, June 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

৭ বছর ধরে শিশুর গলায় আটকে ছিল কয়েন

৫ বছর বয়সে কয়েনটি গিলে ফেলে ওই শিশু

আপডেট : ০৮ জুন ২০২৪, ০৫:৩২ পিএম

১২ বছর বয়সি এক শিশুর গলায় আটকে থাকা একটি কয়েন অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে বের করেছেন চিকিৎসকরা। শিশুটির পরিবারের দাবি, মাত্র ৫ বছর বয়সে সে কয়েনটি গিলে ফেলে। এরপর থেকে সে বেশ স্বাভাবিকই ছিল। তবে এ বছরের এপ্রিলে তার পেটে ও গলায় প্রচণ্ড ব্যথা শুরু হলে নেওয়া হয় হাসপাতালে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের হারদয় গ্রামে। দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজ্যের বাঘৌলির মুরালিপুরা গ্রামের বাসিন্দা ওই শিশুর নাম অঙ্কুল।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চিকিৎসক বিবেক সিংহ এবং তার সহযোগী চিকিৎসকেরা যৌথভাবে অস্ত্রোপচার পরিচালনার মাধ্যম গত সপ্তাহে শিশুটির গলার ভেতর থেকে কয়েনটি বের করা হয়।

শিশুটির চাচা জানান, সে মাত্র ৫ বছর বয়সেই কয়েনটি গিলে ফেলেছিল। তবে এ বছরের এপ্রিলে প্রথমবার তার পেটে যন্ত্রণা শুরু হয়। এরপর অঙ্কুলকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যায় পরিবারের সদস্যরা। চিকিৎসকের দেওয়া কিছু ওষুধ খেয়ে সে সুস্থ হয়ে ওঠে। তবে কয়েকদিন পরই তার গলায় ব্যথা শুরু হয়। এরপর তাকে আবারও হাসপাতালে নেওয়া হয়।

হাসপাতালে এক্সরে করার পর দেখা যায়, শিশুটির খাদ্যনালির একপাশে একটি কয়েক আটকে রয়েছে। এরপর টেলিস্কোপ অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে কয়েনটি বের করা হয়।

চিকিৎসকরা জানান, কয়েনটি এমনভাবে অঙ্কুলের খাদ্যনালিতে আটকে ছিল যে তাতে তার খুব বেশি ওর অসুবিধা হচ্ছিল না। তবে বড় রকমের ঝুঁকিতে ছিল সে।

চিকিৎসক বিবেক সিংহ বলেন, “কয়েনটি শিশুটির গলায় ৭ বছর আটকে ছিল, ভেবেই অবাক লাগছে। এর থেকে ওর শরীরে বড় রকম সংক্রমণে ঝুঁকি ছিল। কয়েনটি বের করা হলেও সংক্রমণের ঝুঁকি কিন্তু এখনও রয়েছে।”

About

Popular Links