Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পোশাকের জন্য হেনস্থা, যুবতীকে বিমান থেকে নামিয়ে দেয়ার হুমকি

বিমানে ওঠার পরই কেবিন ক্রুরা এমিলি ও’কোনর নামের এই ব্রিটিশ যুবতীকে জানায়, তার পোশাক 'অশালীন'

আপডেট : ১৫ মার্চ ২০১৯, ০৩:১০ পিএম

পোশাকের জন্য বিমানের মধ্যে হেনস্থা হতে হল এমিলি ও’কোনর নামের এক ব্রিটিশ যুবতীকে। কালো ক্রপ টপ ও কমলা রঙের ট্রাউজারে পরেথমাস কুক এয়ারলাইন্সের বিমানে চড়েছিলেন তিনি। কিন্তু বিমানে ওঠার পরই কেবিন ক্রুরা তাকে জানায়, তার পোশাক যথাযথ নয়, 'অশালীন'। শুধু তাই নয়, পোশাকের জন্য তাকে নামিয়ে দেওয়ার হুমকিও দেয়া হয়।

পোশাকের জন্য বিমানের মধ্যে হেনস্থার ঘটনা টুইট করে জানান এমিলি। টুইটারে কোনর লিখেছেন,"বার্মিংহাম থেকে টেনেরিফ আসছিলাম। এয়ারপোর্টের সিকিউরিটি চেক কোথাও কোনও সমস্যা হয়নি। কিন্তু প্লেনে ওঠার পরেই কেবিন ম্যানেজার-সহ চার কেবিন ক্রু এসে আমাকে ঘিরে ধরে। ওপরে একটা জ্যাকেট না পরলে প্লেন থেকে আমাকে নামিয়ে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়। আমার পোশাকে কোনও যাত্রীর সমস্যা হচ্ছে কিনা, তা জানতে চাই আমি। কেউ কোনও উত্তর দেয় না। আমি ওদের সঙ্গে তর্ক করায় ওরা আমার ব্যাগ ধরে টানাটানি শুরু করে। সেই সময় এক যাত্রী আমার উদ্দেশে আপত্তিজনক মন্তব্যও করেন। তাকে কেউ কিছুই বলে না। বাধ্য হয়ে আমি জ্যাকেট পরে নিলে আমাকে ছেড়ে দেয় ওই বিমানকর্মীরা"।


এই ঘটনার পর অধিকাংশ মানুষ এমিলিকে সমর্থন করেছেন। তার পোশাকে কোনও সমস্যা নেই বলেও জানিয়েছেন অনেকে। ওই তরুণীর আরও অভিযোগ, তার আসনের পিছনের দিকে দু’জন ব্যক্তি হাফপ্যান্ট ও গেঞ্জি পরে বসেছিলেন। কিন্তু তাদের পোশাক নিয়ে কোনও আপত্তি জানায়নি বিমানকর্মীরা।

ইংল্যান্ডের মতো জায়গায় এমন ধরনের ব্যবহারের মুখে পড়তে হতে পারে, এ কথা স্বপ্নেও ভাবেননি বলে জানান এমিলি।  


About

Popular Links