• বুধবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৫ রাত

এশিয়ায় টুইটার ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে আইয়ুব বাচ্চু

  • প্রকাশিত ০৪:৫৯ বিকেল অক্টোবর ২০, ২০১৮
bacchu
আইয়ুব বাচ্চু। ফাইল ছবি

অনেকে জানিয়েছেন, শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদন ও বাদ জুম’আ জাতীয় ঈদগাহে আইয়ুব বাচ্চুর নামাজে জানাজার খবর।

বাংলা রক সংগীতের কিংবদন্তি আইয়ুব বাচ্চুকে স্মরণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম অসংখ্য বার্তা ও ছবি শেয়ার দিচ্ছে তাঁর ভক্তরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারেও তাঁকে নিয়ে অসংখ্য পোস্ট দিচ্ছেন সাধারণ মানুষ। বর্তমানে এশিয়া অঞ্চলে টুইটার ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে আছেন আইয়ুব বাচ্চু।

ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্টে শোকবার্তায় বলা হয়েছে, ‘কিংবদন্তি বাংলাদেশি পপ শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর অকাল প্রয়াণে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। তিনি ছিলেন রক সংগীতশিল্পী ও বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় গিটারিস্ট। রক ব্যান্ড এলআরবি তারই হাতে গড়া।’

আইয়ুব বাচ্চুর ছবির সঙ্গে তার গাওয়া ‘এই রূপালি গিটার ফেলে একদিন চলে যাবো দূরে বহুদূরে, সেদিন চোখে অশ্রু তুমি রেখো গোপন করে’ গানের লাইন জুড়ে দিয়ে পোস্ট করেছেন অনেক ভক্ত ও শুভকাঙ্ক্ষী। বেশিরভাগ টুইটে রয়েছে ‘রেস্ট ইন পিস’ হ্যাশট্যাগ।

টুইটার ব্যবহারকারীরা লিখেছেন, ‘বিদায় হে অগ্রপথিক’, ‘কিশোর মনে ভালোবাসা অনুভব করতে শিখেছিলাম তোমার গান শুনতে শুনতে’, ‘কৈশোরটা হয়তো অসম্পূর্ণ থেকে যেত ওনার গান ছাড়া’, ‘জনপদ এখন ঘুমিয়ে পড়েছে, বাতাসে তোমার স্মৃতি।’

অনেকে জানিয়েছেন, শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদন ও বাদ জুম’আ জাতীয় ঈদগাহে আইয়ুব বাচ্চুর নামাজে জানাজার খবর।

গত ১৮ অক্টোবর সকালে মৃত্যুবরণ করেন গায়ক, গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক ও রকস্টার আইয়ুব বাচ্চু। তাঁর মৃত্যুতে বাংলা সংগীত জগতে নেমে এসেছে বিষাদের ছায়া। বাংলাদেশের মতো ভারতেও তাকে ঘিরে চলছে শোক প্রকাশ। আশির দশক থেকে শুরু করে প্রায় তিন যুগ ধরে দুই বাংলার অসংখ্য কিশোর ও তরুণের স্মৃতি বিনির্মাণে জড়িয়ে আছে তার নাম। 

শনিবার ট্রেন্ডিংয়ে আইয়ুব বাচ্চুর পরে আছে অমতৃসার ট্রেন ট্র্যাজেডি হ্যাশট্যাগ। ভারতের অমৃতসারে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা সম্পর্কিত খবরে এটি ব্যবহার হয়েছে। একই ঘটনা নিয়ে অমৃতসার ট্রেন অ্যাক্সিডেন্ট হ্যাশট্যাগ রয়েছে ছয় নম্বরে।