• শনিবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০৪ রাত

দুই মাস শুয়ে থাকলে সাড়ে ১৫ লাখ টাকা দেবে নাসা

  • প্রকাশিত ০৪:১৮ বিকেল মার্চ ২৮, ২০১৯
নাসা
এই গবেষণাগারেই শুয়ে থাকতে হবে অংশগ্রণকারী স্বেচ্ছাসেবকদের। দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট

এ সময়ের মধ্যে খাওয়া দাওয়া থেকে শুরু করে প্রাকৃতিক কাজ সবকিছুই করতে হবে শুয়ে শুয়ে

দুই মাস বিছানায় শুয়ে থাকার চাকরি দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। মানুষের শরীরে কৃত্রিম মাধ্যাকর্ষণের প্রতিক্রিয়া কী হয় তা যাচাই করতে তাদেরকে এই গবেষণায় নেওয়া হবে। আবেদনকারীদের মধ্য থেকে মোট ২৪ জনকে চাকরি দেওয়া হবে। তাদের কাজ হবে নাসার গবেষণার অংশ হিসেবে ৬০ দিন গবেষণাগারের বিছানায় শুয়ে থাকা। এজন্য তাদের প্রত্যেককে বেতন হিসেবে দেওয়া হবে ১৪ হাজার ১৭৭ পাউন্ড। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় ১৫ লাখ ৬৯ হাজার ৫০৯ টাকা। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।

ইউরোপীয়ান স্পেস এজেন্সি- এসা'র সঙ্গে সমন্বিতভাবে এ গবেষণা পরিচালনা করছে নাসা। এজন্য বাছাইকৃত ২৪ জন আগামী সেপ্টেম্বরে জার্মান অ্যারোস্পেস সেন্টারে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। সেখানেই বৈজ্ঞানিক গবেষণার জন্য দুই মাস ধরে শুয়ে থাকতে হবে তাদের।

জার্মানিতে তাদের দুইটি দলে ভাগ করে দিয়ে একটি কক্ষে রাখা হবে। এ সময়ের মধ্যে খাওয়া দাওয়া থেকে শুরু করে প্রাকৃতিক কাজ সবকিছুই করতে হবে শুয়ে শুয়ে। তবে যাতে বিরক্তির উদ্রেক না হয় সেজন্য তাদের জন্য থাকছে বিনোদনের ব্যবস্থা। তাদের জন্য একটি টেলিভিশনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া বই পড়াসহ শুয়ে শুয়ে অবসর যাপনের যাবতীয় উপাদান থাকছে রুমটিতে। তাদের পুষ্টিকর খাবারের দিকে নজর রাখবে কর্তৃপক্ষ। তবে আয়োজকদের পরামর্শ হচ্ছে, এই অখণ্ড অবসরে বিভিন্ন অনলাইন কোর্স করে নেওয়া যেতে পারে।

নাসার প্যাকেজটি মূলত ৮৯ দিনের। ঘুমানোর ৬০ দিনের আগে পরে সবার সঙ্গে পরিচিত হওয়া, নতুন পরিবেশে খাপ খাওয়ানো এবং স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাওয়ার প্রস্তুতির মতো আনুষঙ্গিক কার্যাবলিতে ব্যয় হবে।

অংশগ্রহণকারীদের শুয়ে থাকার ধরন হবে কিছুটা ভিন্ন। রক্তপ্রবাহ কমাতে তাদের মাথার চেয়ে পা কিছুটা ‍উপরে থাকবে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই গবেষণা মহাকাশে তাদের দীর্ঘ যাত্রাকালীন অবস্থা নিয়ে কোনও সুফল নিয়ে আসতে পারে।