Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

খুলনায় ঈদের জামাত কখন কোথায়

ঈদের জামাতে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ঈদের জামাতের কাতারে দাঁড়াতে হবে

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২০, ১১:০৮ এএম

করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে ঈদুল আযহায় সারাদেশের মতো খুলনায়ও ঈদগাহসহ উন্মুক্ত মাঠে কোনো ঈদের জামাত হবে না। খুলনায় ঈদুল ফিতরের প্রধান ও প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায় টাউন জামে মসজিদে। জামাতে ইমামতি করবেন টাউন জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোহাম্মদ সালেহ। একই স্থানে দ্বিতীয় জামাত সকাল ৯টায় অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া কোর্ট জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

খুলনা সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত বায়তুন নূর জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে পবিত্র ঈদুল আযহার দু’টি জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৮টায় ১ম জামায়াতে ইমামতি করবেন মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা ইমরান উল্লাহ এবং সকাল ৯টায় ২য় জামায়াতে ইমামতি করবেন মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা আব্দুল গফুর।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় জামে মসজিদে সকাল ৭টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় জামে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায়। নগরীর ময়লাপোতা মোড়ের বায়তুল আমান জামে মসজিদে ঈদ উল আযহার দুটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে এবং দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হবে ৮টা ৪৫ মিনিটে। নগরীর ইকবাল নগর জামে মসজিদে ঈদের একমাত্র জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৭টায়। নগরীর রূপসা স্ট্র্যান্ড রোডে বায়তুশ শরফ মসজিদ কমপ্লেক্স ও রূপসা ফেরিঘাটে হযরত আবুবকর সিদ্দিকী (রা.) জামে মসজিদে সকাল সাডে ৭টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। নগরীর হাজী মেহের আলী সড়কের মসজিদ-এ-মিনাতে ঈদুল আযহার নামাজ সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে।রেলিগেট বায়তুল ইলাহ্ জামে মসজিদে সকাল ৮টায়, মহেশ্বরপাশা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে সকাল ৮টায়, কুলি বাগান ইস্পাহানি কলোনী জামে মসজিদে সকাল ৮টায়, দৌলতপুর বেবীটেক্সি স্ট্যান্ড জামে মসজিদে সকাল ৮টায়, ইসলাম বাগ জামে মসজিদে সকাল ৮টায়, মহেশ্বরপাশা সাহেব পাড়া বায়তুন নূর জামে মসজিদে ঈদের ১ম জামাত সকাল সাড়ে ৭টায় এবং ২য় জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া গিলাতলা গাজীপাড়া বায়তুন নাজাত জামে মসজিদে সকাল ৮টায়, গিলাতলা বায়তুল হামদ্ জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায়, মোল্লাপাড়া জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায়, শেখপাড়া বায়তুল আমান জামে মসজিদে সাড়ে ৭টায়, গিলাতলা বাজার (ফাঁড়ি) মসজিদে সকাল ৭টায়, শিরোমনি পূর্বপাড়া বায়তুল আক্সা জামে মসজিদে সকাল ৮টায়, শিরোমণি বায়তুল মা’মুর (বাজার) জামে মসজিদে সকাল ৭টায়, ৮টায় ও ৯টায়, ফুলবাড়ীগেট বাজার জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায়, ফুলবাড়ীগেট বায়তুল আমান জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭টায় অনুষ্ঠিত হবে।

খুলনা আলিয়া কামিল মাদ্রাসা জামে মসজিদ, সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকা (২য় ফেজ) বায়তুল্লাহ জামে মসজিদসহ খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৩১টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন মসজিদে নিজেদের সময় অনুযায়ী ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া জেলার সকল মসজিদে ঈদ-উল-আযহার জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রয়োজনে একই মসজিদে একাধিক জামাত আদায় করা যাবে।

সরকারি নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ঈদের জামাতে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ঈদের জামাতের কাতারে দাঁড়াতে হবে। এক কাতার বাদে এক কাতার করে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করতে হবে। মসজিদের অযুর স্থানে সাবান ও স্যানিটাইজার রাখতে হবে। মুসুল্লিদের বাসা থেকে অযু করে এবং মাস্ক পরে মসজিদে আসতে হবে। অযু করার সময় কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে। জামাত শেষে কোলাকুলি এবং পরস্পর হাত মেলানো যাবে না। মসজিদে কার্পেট বিছানো যাবে না। মসজিদ জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে এবং মুসুল্লিরা বাসা থেকে নিজ নিজ দায়িত্বে জায়নামাজ নিয়ে আসবেন। মসজিদের টুপি এবং জায়নামাজ ব্যবহার করা যাবে না। শিশু, বয়োবৃদ্ধ, যে কোনো অসুস্থ ব্যক্তি, অসুস্থদের সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তি ঈদের জামাতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। করোনাভাইরাস মহামারি থেকে রক্ষা পেতে নামাজ শেষে মহান আল্লাহর দরবারে দোয়া করা হবে।

এদিকে, ঈদের দিন সকালে সকল সরকারি, আধা-সরকারি, বেসরকারি, স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান ও ভবনে যথাযথভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং সূর্যাস্তের পূর্বে নামানো হবে। জাতীয় পতাকা ও ঈদ মোবারক বাংলা ও আরবি খচিত ব্যানার দ্বারা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহ, সড়কদ্বীপ ও সার্কিট হাউজ সাজানো হবে। হাসপাতাল, কারাগার, সরকারি শিশুসদন, ভবঘুরে কল্যাণকেন্দ্র ও দুস্থ কল্যাণকেন্দ্রে ঈদ উপলক্ষে বিশেষ খাবার পরিবেশন করা হবে।

About

Popular Links