Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে এক তরুণের প্রয়াস

চলতি বছরের শেষদিকে শীতার্ত মানুষকে সহায়তার প্রয়াসে কাজ করার পরিকল্পনা রয়েছে তার

আপডেট : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:৩৯ পিএম

প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের মাঝে সচেতনতার বার্তা ছড়িয়ে দিতে তরুণরা প্রায়ই বিভিন্ন কল্যাণমুখী উদ্যোগ নেন নিজ নিজ অবস্থান থেকে। তেমনই এক তরুণ রংপুরের সোহেল রানা সোহান। নিজ বিভাগের মানুষকে বৃক্ষরোপণে উৎসাহিত করার পাশাপাশি বাল্যবিবাহ এবং শিশুদের শারীরিক-মানসিক ও অবহেলাজনিত নির্যাতনের কুফল, পাশাপাশি অটিজম সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করতে উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।

এ লক্ষ্যে সম্প্রতি রংপুর বিভাগের ৮টি জেলায় ৪০০ কিলোমিটার পথ হেঁটে অতিক্রম করেছেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শিক্ষার্থী। যাত্রাপথে বিভিন্ন এলাকায় বিশেষ করে গ্রামগঞ্জে স্থানীয়দের মাঝে তার সচেতনতামূলক বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন সোহান।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর ভোর সাড়ে ৫টায় গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী থেকে শুরু হয় সোহানের এই একক পদযাত্রা। আর ২১ সেপ্টেম্বর দুপুর ১টা ৫৬ মিনিটে পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্টে গিয়ে থামেন তিনি।

ছবি: সৌজন্যঢাকা ট্রিবিউনকে সোহান জানান, “আমি দীর্ঘদিন ধরে রানিং-সাইক্লিংয়ের সঙ্গে যুক্ত। দেশের সবচেয়ে বড় সড়কপথ টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ থেকে তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধা জিরোপয়েন্ট (১০০০ কিলোমিটার) সবচেয়ে কম সময়ে হেঁটে অতিক্রম করার রেকর্ড করার ইচ্ছা আছে আমার। তারই প্রস্তুতি হিসেবে এই ক্যাম্পেইন।”

“এবার ৭ দিনে রংপুর বিভাগের ৮টি জেলার ৪০৪ কিলোমিটার পথ হেঁটেছি আমি।”

এই সফরে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৫৭ কিলোমিটার হাঁটতে হয়েছে সোহানকে।

৪০৪ কিলোমিটার হাঁটার পাশাপাশি প্রজেক্ট চলাকালীন সাপোর্ট টিমের সহায়তায় রংপুর বিভাগের বিভিন্ন এলাকায় দুই শতাধিক গাছ লাগিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি একটি এতিমখানার ৫০ শিশুর এবং একটি বৃদ্ধাশ্রমের ৩০ জন বৃদ্ধ মা-বাবার একবেলার খাবারের ব্যবস্থা করেছেন তিনি।

চলতি বছরের শেষদিকে শীতার্ত মানুষকে সহায়তার প্রয়াসে সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগে হাঁটার পরিকল্পনা রয়েছে সোহানের।

About

Popular Links