Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চলছে ৩ হাজার বছর আগের যোদ্ধাদের ক্লোন, নতুন সেনা আনছে রাশিয়া!

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সেরগেই শোইগু এক সরকারি অনুষ্ঠানে, এ বিষয়ে জোরালো ইঙ্গিতও দিয়েছেন

আপডেট : ২১ জুন ২০২১, ০৩:০৯ পিএম

আগের দিনে বিশাল সৈন্যবাহিনী নিয়ে রাজ্য জয়ে বের হতেন রাজারা। হিংস্র আর অপাজেয় এসব বাহিনীর নিষ্ঠুরতার কাছে হার মেনে যায় বর্তমান সময়ের যোদ্ধারাও।

কালের স্রোতে “অপরাজেয়” সেই বাহিনী হারিয়ে গেলেও এসেছে আধুনিক বিজ্ঞান ও গবেষণার যুগ। আর এই বিজ্ঞানকেই হাতিয়ার করে এবার অপরাজেয় সেই “ইউনিভার্সাল সোলজার্স” নতুন করে তৈরি করতে চাইছে বিশ্বের বৃহত্তম সেনাশক্তির দেশ রাশিয়ার গবেষকেরা।

প্রায় তিন হাজার বছর পূর্বের ভয়ংকর যোদ্ধাদের দেহাবশেষ থেকে ডিএনএ নিয়ে ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে নতুন যোদ্ধা তৈরি করার চেষ্টা করছেন তারা।

দ্য ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়, রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সেরগেই শোইগু এক সরকারি অনুষ্ঠানে, এ বিষয়ে জোরালো ইঙ্গিত দিলেও, কী কারণে ক্লোন করে যোদ্ধাদের নতুন করে জীবন দিতে চাইছেন তা পরিষ্কার করেননি।

তবে ধারণা করা হচ্ছে দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সম্প্রতি “সেনাবাহিনীকে আরও শক্তিশালী” করার নির্দেশ দেওয়াতেই তা মান্য করতে উঠে পড়ে লেগেছেন বিজ্ঞানীরা।

ইতোমধ্যে সাইবেরিয়ার তুন্দ্রা এলাকা থেকে প্রায় দু’দশক আগে উদ্ধারকৃত “সিথিয়ানস” নামক এক যাযাবর যোদ্ধা জাতির দেহাবশেষ নিয়ে গবেষণাও শুরু করে দিয়েছেন তারা।

ইতিহাস ঘেটে জানা যায়, সিথিয়ানসরা মূলত হিংস্র জাতি মোঙ্গলদেরই পূর্বপুরুষ। তবে খ্রিস্টপূর্ব নবম শতাব্দী থেকে খ্রিস্টপূর্ব দ্বিতীয় শতাব্দী পর্যন্ত সিথিয়ানসরা ইরানের বাসিন্দা ছিল। পুরো ইউরেশিয়ার বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে ছিল তাদের দাপট। এমনকি ভারতেও এসেছিলো তারা।

উল্লেখ্য, প্রানী বা উদ্ভিদের জীবনের ক্ষুদ্রতম অংশ “জিনের” গঠন হুবহু নকল করে নতুন প্রাণের জন্ম দেওয়াকেই ক্লোনিং বলা হয়। এর আগে “ডলি” নামে একটি ভেড়ার ক্লোনিং করে স্তন্যপায়ী প্রাণীদের হুবহু নকল বানানো সম্ভব বলে দেখিয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা।

তবে হুবহু মানবদেহের ক্লোনিং সম্ভব কিনা সে বিষয়ে এখনও অনিশ্চিত তারা। কেন না ক্লোন তৈরির জন্য পুরনো কোষ থেকে নিউক্লিয়াস স্থানান্তর করে নতুন কোষে স্থাপন করা হয়। এই প্রক্রিয়ায় প্রথমে নতুন কোষের নিউক্লিয়াস সরিয়ে ফেলা লাগে। আর এখানেই মূলত সব সমস্যা। কারণ কোষ থেকে কোনো ক্ষতি না করে নিউক্লিয়াস আলাদা করা এখনও সম্ভব হয়নি। আর এর ফলে করা যায়নি মানুষের ক্লোনিং। তাছাড়া মানুষের ক্লোন করা আইনত অবৈধ।

এদিকে রাশিয়ার এই ক্লোন যোদ্ধাদের কথা ছড়িয়ে পড়লে অনেকেই নানা ধরনের কৌতুহল প্রকাশ করেছেন। কেউ জানতে চেয়েছেন, এই ক্লোন যোদ্ধারা শিশু থাকা অবস্থায় তাদের দায়িত্ব কে নেবে? 

আবার অনেকেই জানতে চেয়েছেন, শিশুর বিকাশ নির্ভর করে তার চারপাশের পরিবেশের উপর। এই শিশুদের কী যুদ্ধক্ষেত্রে রেখে হিংস্রতার প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে?

About

Popular Links