Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

৭৮ বার করোভাইরাস পজিটিভ হয়েছেন তিনি!

এখন পর্যন্ত তিনি ৯ মাস কাটিয়েছেন হাসপাতালে এবং ৫ মাস কাটিয়েছেন নিজ বাসায় কোয়ারেন্টাইনে

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৯:১২ পিএম

করোনাভাইরাস মহামারি শুরুর পর থেকে গত দুই বছরে অনেকেই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন, আবার সুস্থও হয়েছেন অনেকে। অনেকে এই ভাইরাসে একাধিকবার আক্রান্ত হয়েছেন, ভুগেছেন দীর্ঘদিন। তবে তুরস্কের নাগরিক মুজাফফার কায়সান বোধহয় সবচেয়ে বেশিদিন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি।

২০২০ সাল থেকে এ পর্যন্ত মোট ৭৮ বার করোনাভাইরাস পজিটিভ হয়েছেন তিনি। এ কারণে ৫৬ বছর বয়সী মুজাফফার ১৪ মাস ধরে হাসপাতাল ও বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে আছেন বলে জানিয়েছে ডেইলি সাবাহ।

লিউকোমিয়ার রোগী মুজাফফের কেয়াসান ২০২০ সালের নভেম্বরে প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। প্রথম দফায় ভাইরাসটি তাকে তেমন ভোগাতে পারেনি। অল্প কিছুদিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে ইস্তাম্বুলে নিজ বাসায় কোয়ারেন্টাইনে থাকেন তিনি।

এরপর থেকে ৭৮ বার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করে প্রতিবারই পজিটিভ এসেছে মুজাফফারের। এখন পর্যন্ত তিনি ৯ মাস কাটিয়েছেন হাসপাতালে এবং ৫ মাস কাটিয়েছেন নিজ বাসায় কোয়ারেন্টাইনে।

ঘরবন্দী জীবন তাকে পরিবারের সদস্যদের থেকেও একরকম বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছিল। বন্দীদশা থেকে মুক্তির জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেন মুজাফফর

শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় বার্তা সংস্থা ইহলাস নিউজ এজেন্সি (আইএইচএ) কে মুজাফফার জানান, চিকিৎসকদের মতে লিউকেমিয়ার কারণে তার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম হওয়ায় তিনি বারবার করোনাভাইরাস পজিটিভ হচ্ছেন।

তিনি বলেন, “করোনা আমার সামাজিক জীবন নষ্ট করেছে। আমি এই রোগের প্রভাব থেকে মুক্তি পেলেও আবার শরীরে এখনও কোভিড-১৯ এর ভাইরাস রয়েছে।”

তিনি আরও বলেন, "প্রিয়জনকে স্পর্শ করতে না পারা ছাড়া আর কোনো সমস্যা নেই আমার। এটি খুবই কঠিন এক পরিস্থিতি। আমার এই অবস্থার জন্য আমি ভ্যাকসিনও নিতে যেতে পারছি না।" 

প্রথম দিকে মুজাফফেরের স্ত্রীও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। নির্দিষ্ট সময় পর দুই দফা পরীক্ষায় তার নেগেটিভ ফল আসে। ওই সময়ে স্ত্রী ছাড়াও তার এক ছেলের করোনাভাইরাস পজিটিভ হয়। পরে পরীক্ষায় তারও নেগেটিভ ফল আসে। কিন্তু আটকে যান মুজাফফের, একের পর এক পরীক্ষায় পজিটিভ শনাক্ত হন তিনি।

About

Popular Links