Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

যেসব দেশ ভ্রমণে লাগবে না কোভিডের পিসিআর পরীক্ষা

তবে সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়ার সনদ দেখাতে হবে যাত্রীদের

আপডেট : ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৮:০৫ পিএম

করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ধরনের সংক্রমণ হার ধীরে ধীরে কমে আসায় বেশ কয়েকটি দেশ তাদের ভ্রমণ নীতিমালা থেকে ভ্রমণ-পূর্ব পিসিআর পরীক্ষা বাতিল করেছে।

বাহরাইন এবং যুক্তরাজ্য ছাড়াও অন্যান্য অনেক দেশে টিকা নেওয়া ভ্রমণকারীদের জন্য ভ্রমণ-পূর্ব কোভিড -১৯ পরীক্ষার প্রয়োজন হবে না।

গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া যাত্রীদের জন্য বিধিনিষেধ সহজ করাকে আন্তর্জাতিক ভ্রমণের উত্সাহ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

বাহরাইন গত ৪ ফেব্রুয়ারি ঘোষণা করেছে, দেশটিতে আসা যাত্রীদের আর বিমানে ওঠার আগে পিসিআর পরীক্ষা করতে হবে না।

দেশটির সিভিল এভিয়েশন অ্যাফেয়ার্স (সিএএ) জানিয়েছে, টিকা না নেওয়া যাত্রীদের অবশ্যই সতর্কতামূলক কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি এক ঘোষণায় যুক্তরাজ্য সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া ভ্রমণকারীদের জন্য কোভিড পরীক্ষা বাতিল করেছে।

ব্রিটিশ সরকার জানায়, ওমিক্রনের দৈনিক সংক্রমণ কমে আসায় দেশটিকে ভ্রমণকারীদের জন্য আরও উন্মুক্ত করার সময় এসেছে।

সুইডেন গত ১৮ জানুয়ারি থেকে দেশে প্রবেশের জন্য আরটি-পিসিআর পরীক্ষার বাধ্যতামূলক নেগেটিভ ফলাফল বাতিল করেছে।

সরকারি এক বিবৃতিতে বলা হয়, সুইডেনে ওমিক্রনের বিস্তারের জন্য ভ্রমণকারীদের আর বিশেষ ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে না। এমনকি উপসর্গ থাকা ব্যক্তিদের কোভিড -১৯ এর পরীক্ষা করাও বন্ধ করেছে সুইডেন।

একইভাবে গত ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়াদের জন্য কোভিড -১৯ পরীক্ষার নেগেটিভ ফলাফলের প্রয়োজনীয়তার সমাপ্তি ঘোষণা করেছে ফ্রান্স।

১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া ভ্রমণকারীদের জন্য ভ্রমণ-পূর্ব আরটি-পিসিআর পরীক্ষার প্রয়োজনীয়তা বাতিল করেছে ভারত।

এর আগে, গত সপ্তাহে ভারত বলেছিল, "৮০টিরও বেশি দেশের" যাত্রীদের আরটি-পিসিআর পরীক্ষার রিপোর্ট বা টিকা সম্পূর্ণ করার সনদসহ দেশটিতে ভ্রমণের অনুমতি দেওয়া হবে।

ডেনমার্ক ১ ফেব্রুয়ারি থেকে কোভিড -১৯ সংক্রান্ত সকল নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে।

মহামারি সংক্রান্ত বিধিনিষেধ বাতিল করার ক্ষেত্রে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে এটিই প্রথম সারির দেশ যারা কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবকে "সামাজিকভাবে গুরুতর রোগ" হিসেবে বিবেচনা করে না।

গ্রীস ৭ ফেব্রুয়ারি এক ঘোষণায় ইউরোপীয় কোভিড টিকা সনদ থাকার শর্ত সাপেক্ষে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

১ মার্চ থেকে দেশটিতে গ্রীষ্মকালীন ভ্রমণ শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

টিকা সনদ থাকলে ফেব্রুয়ারি মাস থেকে ভ্রমণকারীদের দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে পর্তুগাল।

বৈধ ডিজিটাল ইউরোপীয় ইউনিয়ন অনুমোদিত সনদ বা টিকা দেওয়ার স্বীকৃত প্রমাণ সাপেক্ষে সকল যাত্রীদের জন্য ভ্রমণ উন্মুক্ত করেছে দেশটি।

৪ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রায় সকল কোভিড -১৯ বিধিনিষেধ বাতিল করেছে নরওয়ে।

নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী জোনাস গহর স্টোর শনিবার সকালে সমস্ত বিধিনিষেধ অবসানের ঘোষণা দেন।

সুইজারল্যান্ড ১২ জানুয়ারী সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া ভ্রমণকারীদের জন্য ভ্রমণ-পূর্ব পিসিআর পরীক্ষা বাতিল করার ঘোষণা দিয়েছে।

পর্যটকদের দেশটিতে প্রবেশের আগে পিসিআর বা অ্যান্টিজেন পরীক্ষার নেগেটিভ প্রমাণ দেখাতে হবে না।

থাইল্যান্ড ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই সকল দেশ থেকে আসা টিকা নেওয়া পর্যটকদের জন্য দেশটিতে প্রবেশের বিধিনিষেধ সহজ করার ঘোষণা করেছে।

সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া ভ্রমণকারীরা টেস্ট অ্যান্ড গো প্রোগ্রামের আওতায় দেশটিতে আসার আগে আরটি-পিসিআর পরীক্ষা এবং হোটেলে এক রাত থাকার পর অবাধে ভ্রমণ করতে পারবে।

ভিয়েতনাম ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে আন্তর্জাতিক যাত্রীবাহী ফ্লাইটের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে। 

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে নিষেধাজ্ঞা সহজ করতে শুরু করেছে দেশটি এবং গত নভেম্বর থেকে ভ্রমণকারীদের প্রবেশে অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

যেসব দেশ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে চায়

কুয়েত ২০ ফেব্রুয়ারী থেকে সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া যাত্রীদের হোম কোয়ারেন্টাইন ছাড়াই দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দেবে।

তবে টিকা না নেওয়া ভ্রমণকারীদের জন্য পিসিআর পরীক্ষার নেগেটিভ সনদ এখনও বাধ্যতামূলক।

পর্যটনের ওপর নির্ভরশীল দেশ সাইপ্রাস ১ মার্চ থেকে সমস্ত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেবে৷ তবে ভ্রমণকারীদের বৈধ টিকা সনদ এবং বুস্টার ডোজের সনদ দেখাতে হবে৷

কানাডা ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে বিধিনিষিধের সংক্ষিপ্ত তালিকা করার পরিকল্পনা করছে। সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়াদের জন্য ভ্রমণ-পূর্ব আরটি-পিসিআর পরীক্ষা বাতিল করা হবে বলেও আশা করা হচ্ছে।

About

Popular Links